বলিউড

কাজ তেমন নেই, টাকার অভাব বচ্চন পুত্রের! ৪৫ কোটি টাকায় মুম্বাইয়ের নিজের বিলাসবহুল আবাসন বিক্রি করে দিলেন অভিষেক বচ্চন

অভিষেক বচ্চন তার মুম্বাইয়ে অবস্থিত একটি আবাসন ৪৫ কোটি ৭৫ লক্ষ টাকায় বিক্রি করছেন। ২০১৪ সালে অভিষেক বচ্চনর ওই ফ্ল্যাটে কিনেছিলেন ৪১ কোটি টাকা দিয়ে। ওই ফ্ল্যাটে থাকেন বলিউডের আরও দুই বিখ্যাত অভিনেতা শাহিদ কাপুর অক্ষয় কুমার।

মানিকন্ট্রোল এর একটি প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে অভিষেক বচ্চনের ফ্ল্যাটটি ৭,৫২৭ স্কোয়ার ফুট আয়তনের, মুম্বইয়ের ওয়ার্লির ওবেরয় ৩৬০ ওয়েস্ট-এর ৩৭ তলায় অবস্থিত। অন্যদিকে শাহিদ কাপুর এই আবাসনের ৫৬ কোটি মূল্যের ফ্ল্যাটটি কেনেন এবং অক্ষয় কুমার ৫২.৫ কোটি টাকা দামের অ্যাপার্টমেন্ট নিজের নামে কিনে নেন। শাহিদ কাপুরের স্ত্রী মীরা কাপুর কে হামেশাই এই ফ্ল্যাটে আনাগোনা করতে দেখা যায়, তাদের এই নতুন ফ্ল্যাট সাজাতে ব্যস্ত মীরা। ফ্ল্যাট সাজানো সেই সমস্ত মুহূর্ত সোশ্যাল মিডিয়ায় দেখা যায়।

২০০৭ সালে অভিষেক বচ্চন এবং ঐশ্বর্য রাই বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। তারপর থেকে তাঁরা নিজেদের বাড়ী ‘জলসা’ তেই এক ছাদের তলায় মা-বাবা এবং সন্তানকে নিয়ে থাকেন। এই আবাসনটি নাম মাত্রই কিনেছিল দম্পতি। সেখানে আলাদা করে থাকবার কোনো রকম কোনো পরিকল্পনা ছিল না কখনো।

বিয়ের আগে বাবা-মার সঙ্গে এবং বিয়ের পরে শশুর বাড়িতে শ্বশুর-শাশুড়ি এবং পরিবারের সঙ্গে থাকাটাই সংস্কৃতি বলে মেনে এসেছে ঐশ্বর্য রাই এবং সেই সংস্কারের অন্যথা হয়নি কখনো। এমনকি কাপিল শর্মা শো তে এসে ঐশ্বর্য রায় জানান দিনের পুরো সময়টা যে যেখানেই থাকুক অন্তত একটি বেলা বচ্চন পরিবার পুরো এক জায়গায় বসে তাদের খাবার খান এবং সেই খাবার টেবিলে বসে কখনোই ফিল্ম জগতের কোনরকম আলোচনা হয় না পুরোটাই পারিবারিক আলোচনায় হয়, এই নিয়মটি জয়া বচ্চনের।

৩-৪ বছর আগে অভিষেক বচ্চনকে একটি প্রশ্ন করা হয় কেন তিনি বাবা-মার সঙ্গে থাকেন উত্তরে অভিষেক বচ্চন জানান “হ্যাঁ থাকি কারণ এটি আমার কাছে গর্বের বিষয়, এটাই আমার সংস্কৃতি আমি আবার মা-বাবার পাশে থাকছি তারা যেমন আমার পাশে ছিলেন তেমন করে এখন আমার তাদের পাশে থাকার কর্তব্য, আমি সেটাই পালন করছি, আপনারা সকলেই এই ব্যাপারটা চেষ্টা করে দেখতে পারেন এটি খুবই গর্বের বিষয়”।

Back to top button