বলিউড

ইন্ডিয়ান আইডলের বিজয়ী পবনদ্বীপ রাজন এর প্রথম দিনের অডিশন পিয়ানো বাজিয়ে দুর্দান্ত গান, ভাইরাল ভিডিও

গতকাল ধুমধাম আয়োজনের মধ্য দিয়েই ইন্ডিয়ান আইডলের গ্র্যান্ড ফিনালে অনুষ্ঠিত হলো। উত্তরাখণ্ডের পবনদীপ রাজন জিতেছেন ইন্ডিয়ান আইডলের ১২ তম আসর । পবনদীপ বিজয়ীর ট্রফি সাথে সাথে জিতে নিয়েছেন ২৫ লাখের পুরস্কার ও একটি বিলাসবহুল গাড়ি। বাংলার মেয়ে অরুণিতা কাঞ্জিলাল দ্বিতীয় স্থান অধিকার করে এবং সায়লি কাম্বলে তৃতীয় স্থানে বিরাজ করে। ইন্ডিয়ান আইডল এমন একটি প্ল্যাটফর্ম যা শিল্পীদের অনেক সম্মান দেয় এবং শো তে যে ধরনের এক্সপোজার দেয় তা অতুলনীয়।

শেষ পর্বে কিয়ারা আডবাণী, সিদ্ধার্থ মালহোত্রা, এবং অন্যান্যরা অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। সোনু কাক্কর তার বোন নেহা কক্করকে বিচারক হিসাবে পূরণ করেছিলেন এবং হিমেশ রেশমিয়া, বিশাল দাদলানি এবং অন্যান্যরাও আনু মালিকের সাথে শোতে যোগ করেছিলেন এই বিশেষ দিনে।

এই বিশেষ দিনে পর্বটি নিয়মিত হোস্ট আদিত্য নারায়ণ এবং ভারতী সিং এবং হর্ষ লিম্বাচিয়া দ্বারা সঞ্চালিত হয়েছিল। কাল বিজয়ীর নাম ঘোষণা হওয়ার পর থেকে সারা দেশে পবনদ্বীপ কে নিয়ে মাতামাতি শুরু হয়ে গেছে। সারা সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে শুধু পবন এর জয়জয়কার।

তবে কয়েকমাস পিছনে ফিরে গেলে মনে পড়ে পবনদ্বীপ এর প্রথমদিনের অডিশন এর কথা। পিয়ানো বাজিয়ে গোটা গ্রামকে উপস্থিত রেখে কি সুন্দর সুরে ‘তুম না হো’ গান টি গেয়েছিলেন। বিচারকদের মন জয় করে সোনার টিকিট অর্জন করেছিল সেদিন উত্তরাখণ্ড এর এই ছেলেটি। সেই দিন থেকেই প্রচুর মানুষ পবন এর ভক্ত হয়ে উঠেছিল। এখনো সেই ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়াতে ঘোড়া ফেরা করে।

এইদিন গ্র্যান্ড ফিনালেতে অরুণিতা কাঞ্জিলাল অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় হন, তারপরে তৃতীয় স্থানে সায়ালী কাম্বলে, চতুর্থ স্থানে মোহাম্মদ দানিশ, পঞ্চম স্থানে নিহাল তাওরো এবং শানামুখপ্রিয় ষষ্ঠ স্থান অধিকার করে নেয়। বিজয়ীর ঘোষণার পর, পবনদীপ এবং অরুণিতা একে অপরকে জড়িয়ে ধরেন, এবং তারা তাদের জয়ের জন্য একে অপরকে অভিনন্দন জানান। সেই ছবিও এখন সোশ্যাল মিডিয়াতে ঘোরা ফেরা করছে।

বিজয়ী পবনদ্বীপ ট্রফির পাশাপাশি পেলো ২৫ লক্ষ টাকা এবং একটি বিলাসবহুল গাড়ি। যা মারুতি সুজুকি র পক্ষ থেকে ছিল। দ্বিতীয় ও তৃতীয় প্রতিযোগীদের দেয়া হলো নগদ ৫ লক্ষ টাকা করে এবং স্থানাধিকারীরা নগদ তিন লক্ষ টাকা করে। এছাড়াও কোলগেট এবং ডেনভারের তরফ থেকে প্রত্যেকে গিফট দেওয়া হয়। এই প্রথম কোন রিয়েলিটি শো এর গ্র্যান্ড ফাইনাল টানা ১২ ঘন্টা ধরে অনুষ্ঠিত হলো।

Back to top button