বলিউড

‘আমি জাহাঙ্গীরের জন্ম দিতে চাইনি, সাইফের কথাতেই বাধ্য হয়েছি’, বিস্ফোরক করিনা কাপুর খান

বেশ কিছুদিন আগেই দ্বিতীয় সন্তানের মা হয়েছেন অভিনেত্রী করিনা কাপুর খান। ইতিমধ্যেই সন্তানের নামকরণকে নিয়ে গড়ে উঠেছে নানা বিতর্ক। সন্তানের নাম কেন জাহাঙ্গীর আলি খান দেয়া হয়েছে এই নিয়ে নেটিজেনদের যেন আর মাথাব্যথার শেষ নেই। অনেক নেটিজেন কটুক্তি করে লিখেছেন এইবার করিনা কাপুর খান ঔরঙ্গজেবের জন্ম দেবেন। এরই মধ্যে উঠে এল আর এক নতুন তথ্য।

সম্প্রতি প্রকাশিত হয়েছে অভিনেত্রী কারিনা কাপুর খান এর লেখা বই ‘প্রেগনেন্সি বাইবেল’। সেই বইটা অভিনেত্রী নানা অভিজ্ঞতার কথা শেয়ার করে নিয়েছেন। সেই বই থেকে জানা যায় অভিনেত্রী কারিনা কাপুর খান জাহাঙ্গীরকে জন্ম দিতে চাননি। একপ্রকার সাইফ আলী খানের জোরের জন্যই তিনি এই সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। সম্প্রতি সংবাদমাধ্যমের এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন, “আমি অন্তঃসত্ত্বা হতে চাইনি। কিন্তু শাহিফ আমাকে বুঝিয়ে ছিলো।

তবে আমি দ্বিতীয়বার মা হতে চেয়েছিলাম কিন্তু সারোগেসির মাধ্যমে।” মাঝেমধ্যে তারা ভেবেছিলেন তাদের কি আদৌ দ্বিতীয় সন্তান নেওয়া উচিত! একটা আল্টিমেট সিদ্ধান্তে এসে করিনা কাপুর সারোগেসির কথা তুললেও সাইফ আলি খান এই সারোগেসি বিরুদ্ধে ছিলেন। অভিনেতা সাইফ আলী খানের বক্তব্য ছিল,”যদি আমাদের সন্তান নিতে হয় তাহলে নিজেদের চেষ্টাতেই নেওয়া ভালো। ঈশ্বর যদি চান তাহলে আমাদের জীবনে নিশ্চয়ই দ্বিতীয় সন্তান আসবে।” সাইফ আলী খানের এই কথা পরে নিজেও অনুভব করেছিলেন অভিনেত্রী।

অভিনেত্রী কারিনা কাপুর খান এর আরো সংযোজন,”আমি দুই সন্তানকে গর্ভে ধারণ করতে পেরে যথেষ্ট আত্মবিশ্বাসী হয়েছি। তবে আমার হাত, পা, মুখ ফুলে গেছে। ইন্ডাস্ট্রিতে ফিগার ঠিক রাখার চাপ আছে তবে আমি যেসব ব্যান্ডের সাথে আপাতত কাজ করি তাদের কোনো অসুবিধা নেই আমার শারীরিক পরিবর্তন নিয়ে। ফিগার ঠিক রাখার জন্য প্রথমে আমি ভেবেছিলাম সারোগেসির কথা।”

Back to top button