বলিউড

“টাকা পেয়েছি, তাই করেছি”, টাকা পেয়েছিলেন বলেই পান মশলার বিজ্ঞাপন করেছিলেন! পানমশলার বিজ্ঞাপন নিয়ে অকপট অমিতাভ!

পান মশলার বিজ্ঞাপন নিয়ে এখন রীতিমতো দেশজুড়ে সমালোচনার ঝড় বয়ে যাচ্ছে। সম্প্রতি একটি পান মশলার বিজ্ঞাপনে দেখা যাচ্ছে বলিউডের তিন বড় বড় সুপারস্টার বিজ্ঞাপনটি করছেন, যা দেখে রীতিমতো চটেছেন নেটিজেনরা। শাহরুখ খান, অজয় দেবগন ও অক্ষয় কুমার তিনজনে মিলে বিমল ইলাইচির বিজ্ঞাপন করেছিলেন যেটিকে কেন্দ্র করে রীতিমতো শোরগোল পড়ে যায় চারিদিকে। তুমুল সমালোচনার জেরেই অক্ষয় কুমার এই বিজ্ঞাপনটি করার জন্য অনুরাগীদের কাছ থেকে ক্ষমা চেয়ে এই বিজ্ঞাপনের থেকে সরে দাঁড়ান এবং ভবিষ্যতে এরকম আর কোনো বিজ্ঞাপন করবেন না বলে কথা দেন। তবে এই তিন সুপারস্টারের পাশাপাশি পান মশলার বিজ্ঞাপনকে কেন্দ্র করে অমিতাভ বচ্চন‌ও এখন নেটিজেনদের নিশানায়।

পান মশলার ক্ষতিকারক দিক জানার পরেও বলিউডের বিখ্যাত তারকারা এর বিজ্ঞাপন করছে দেখার পর যখন সকলে তারকাদের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিচ্ছেন,তখন বাদ গেলোনা বিগ বির প্রসঙ্গ‌ও। এক বছর আগে অমিতাভ বচ্চনও পানমশলার বিজ্ঞাপন করেছিলেন এবং সেই সময় তাকেও রেয়াত করেননি সমালোচকরা। যদিও বিগ বি‌ও কটু কথা শুনে চুপ থাকার মানুষ নন, তিনি ও সমালোচকদের কড়া কথা শুনিয়ে দিয়েছিলেন।

গত বছরের ১৭ সেপ্টেম্বরে বিগ-বির করা একটি ফেসবুক পোস্টে বিজয় কল্লা নামের একজন অনুরাগী লিখেছিলেন,“প্রণাম স্যার আপনাকে একটা প্রশ্ন করার ছিলো। আপনি পান মশলার বিজ্ঞাপন কেন করতে গেলেন বলুন তো? আপনার সঙ্গে ক্ষুদ্র তারকাদের মধ্যে ফারাকটাই বা কী রইল।” এই প্রশ্নের উত্তর অমিতাভ লিখেছিলেন,“ মান্যবর, আমি আপনার কাছে ক্ষমাপ্রার্থী। কিন্তু কোন‌ও ব্যবসায় কার‌ও উন্নতি হলে এটা ভাববেন না আমরা কেন তার সঙ্গে জুড়ছি। হ্যাঁ এটাই মনে রাখবেন যে আমরা সকলেই ব্যবসা করছি, আপনার হয়তো মনে হচ্ছে আমি যেটা করেছিলাম তা করাটা উচিত হয়নি। কিন্তু ঐ কাজ করে আমি টাকা পেয়েছি।”

ইন্ডাস্ট্রির তারকাকে ক্ষুদ্র বলা প্রসঙ্গে তিনি বলেন কাউকেই ছোট বড় করে বলা উচিত নয়। বিগ-বির কথায়-“তাছাড়া কাউকে ক্ষুদ্র বলার অধিকার আপনার নেই। আমাদের ইন্ডাস্ট্রিতে অনেকেই কাজ করেন। তা বলে কাউকে ছোট করে দেখা যায় না। এই ধরনের কটু কথা বলার আগে একটু ভাববেন।”-এই ভাবে মুখের উপর সপাট জবাব দিয়েছিলেন অমিতাভ বচ্চন।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য পরবর্তীকালে Anti tobacco organisation এর অনুরোধে ওই বিজ্ঞাপন থেকে সরে দাঁড়িয়েছিলেন অমিতাভ। সেই সংস্থার দাবি ছিল যে দেশের তরুণ প্রজন্ম সিনিয়র বচ্চনকে মান্য করেন, তাই তাকে দেখে সবাই তারই অনুকরণ করবেন। এরপরই জনস্বার্থে ওই বিজ্ঞাপন থেকে সরে দাঁড়ান অমিতাভ, এমনকি প্রমোশনের জন্য পাওয়া টাকাও ফিরিয়ে দিয়েছিলেন তিনি।

Back to top button