বলিউড

আবারো একসাথে সুরের জাদুতে মুগ্ধ করলেন সবাইকে অরুনিতা এবং পবনদ্বীপ! সোশ্যাল মিডিয়ায় তাদের নতুন গানের ট্রেলার ভিডিও ভাইরাল

ইন্ডিয়ান আইডল সিজন টুয়েলভ এর প্রতিযোগিদের মধ্যে অন্যতম দুটি পরিচিত নাম হল পবনদ্বীপ রাজন এবং অরুনিতা কাঞ্জিলাল। এই দুই প্রতিযোগী নিজেদের গানের জাদুতে সারা দেশে প্রায় নিজের সুনাম ছড়িয়ে দিয়েছে।

এই বছর ইন্ডিয়ান আইডল সিজন টুয়েলভ এর বিজয়ী হয়েছে উত্তরাখণ্ডের গর্ব পবনদ্বীপ রাজন এবং দ্বিতীয় স্থান অধিকার করে নিয়েছে বাংলার মেয়ে অরুনিতা কাঞ্জিলাল। যদিও একাংশ দর্শকের ইচ্ছে ছিল অরুনীতাকে বিজয়ের আসনে দেখার, তবে সামান্য পার্থক্যের জন্য অরুনিতা দ্বিতীয় স্থান অধিকার করেন।

অরুনিতা এবং পবনদ্বীপ শুধুমাত্র তাদের গানের জন্যই চর্চিত ছিলনা, ইন্ডিয়ান আইডলের মঞ্চে তাদের সম্পর্ক নিয়েও বিভিন্নভাবে বিভিন্ন রকম খবর উঠে এসেছে। বরাবরই তারা খবরের শিরোনামে ছিল একাংশ নেটিজেনদের দাবি শুধুমাত্র টিআরপি বাড়ানোর জন্যই এই সমস্ত ঘটনা ঘটানো হয়েছে। দুজনের সম্পর্ক নিয়ে বারবার প্রশ্ন তোলা হয়েছে কিন্তু অরুনিতা এবং পবনদ্বীপ তাদের সম্পর্ক কি কে শুধুমাত্র বন্ধুত্বের সম্পর্ক হিসেবেই তুলে ধরেছেন, অন্য কোন নাম তারা এই সম্পর্ককে এখনো দেয়নি।

তবে কিছুদিন আগেই শোনা গিয়েছে মুম্বাইতে দুজনে একসঙ্গে ফ্ল্যাট কেনার পরিকল্পনায় রয়েছে এবং কেদারনাথ ভ্রমণের পরিকল্পনা রয়েছে পবনদ্বীপ এবং অরুনিতার। দুজনেই নিজেদের সম্পর্ককে কোন নাম না দিলেও নেটিজেনরা ধরেই নিয়েছে যে দুজনের মধ্যে বন্ধুত্বের চেয়েও বিশেষ কিছু সম্পর্ক গড়ে উঠেছে। ইন্ডিয়ান আইডল চলাকালীন অরুনিতা এবং পবনদ্বীপের একটি গানের অ্যালবাম রিলিজ করেছিল যা সোশ্যাল মিডিয়ায় দারুণভাবে জনপ্রিয়তা পায়।

বলিউডের বিখ্যাত গায়ক হিমেশ রেশমি এই অ্যালবামটি তৈরি করেছেন। নিজের এই অ্যালবামের জন্য তিনি পবনদ্বীপ এবং অরুনিতাকে বেছে নিয়েছেন। এই অ্যালবামে মোট ৯টি গান রয়েছে। যার মধ্যে সম্প্রতি মুক্তি পেয়েছে তৃতীয় গানটি। যদিও সম্পূর্ণ গানটি এখনো রিলিজ করা হয়নি। শুধুমাত্র গানের ট্রেলার সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে সকলের সামনে এসেছে। ভিডিওটি ইতিমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় দারুণভাবে ভাইরাল হয়ে পড়ে। ভিডিওতে অরুনিতা এবং পবন দ্বীপকে :ও সায়নী’ নামক গানের গলা মিলাতে দেখা যাচ্ছে।

ইন্ডিয়ান আইডল এর মাধ্যমে অরুনিতা এবং পবনদ্বীপ দর্শকের সামনে এসেছেন এর আগে যদিও দুইজনেই রিয়েলিটি শো এর পারফর্মেন্স করেছেন, তবুও ইন্ডিয়ান আইডল যেন দুজনকে জনপ্রিয়তার শীর্ষে পৌঁছে দিয়েছে। বর্তমানে দুজনেরই ফ্যান ফলোইং সংখ্যা লক্ষাধিক। দুজনের গানের জাদুতে মেতেছে গোটা দেশবাসী।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Himesh Reshammiya (@realhimesh)

Back to top button