বাংলা সিরিয়াল

“সিরিয়ালের নায়িকাদের মত ন্যাকামো শুরু করেছে” – লক্ষ্মী কাকিমা সুপারস্টার এ ছেলের বিয়ে দিতে গিয়ে লক্ষ্মী কাকিমা ওরফে অপরাজিতা, যা শুরু করেছেন তা দেখে এক প্রকার বিরক্তদর্শক

টলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী অপরাজিতা আঢ্য। একসময় বাংলা টলিউড জগতে দাপিয়ে কাজ করে গিয়েছেন। বর্তমানেও চলচ্চিত্র জগতের এক উজ্জ্বল নাম অপরাজিতা। চলচ্চিত্রের পাশাপাশি নাম লিখিয়েছেন টেলিভিশন জগতেও। মূলত দুটি জায়গার অভিনয়ের বেশ কিছু তফাৎ থাকা সত্ত্বেও নিজের অভিনয় দক্ষতা দিয়ে চুটিয়ে কাজ করছেন অপরাজিতা। বর্তমানে এক জনপ্রিয় ধারাবাহিক “লক্ষ্মী কাকিমা সুপারস্টার”। এই ধারাবাহিকের মুখ্য চরিত্র লক্ষ্মী কাকিমার চরিত্রে অভিনয় করছেন অভিনেত্রী।

অপরাজিতা আঢ্য ধারাবাহিক জগতে আসছেন শুনেই দর্শক বেশ মেতে উঠেছিলেন। কারণ তাঁর অভিনয় আমরা বরাবরই দেখে এসেছি খুবই স্বচ্ছ। ধারাবাহিক যখন শুরু হয়েছিল অভিনেত্রীর প্রতি ঠিক ততটাই বিশ্বাস রেখেছিলেন দর্শক। যে এই অভিনেত্রী হয়তো একটু হলেও অন্য রকমের অভিনয় করবেন ধারাবাহিক জগতে। সেই কারণেই টিআরপি লিস্টেও বেশ ভালো ফলাফল করছে এই ধারাবাহিক।

ধারাবাহিকে মূলত দেখানো হচ্ছিল যে লক্ষ্মী কাকিমা এমন একজন সর্বগুণ সম্পন্ন মহিলা যিনি দর্শক যেমন নিজের সংসার সামলাতে পারেন ঠিক তেমনি সামলাতে পারেন তার ব্যবসা ও। আর তারপরেই লক্ষ্মী কাকিমার সঙ্গে দেখা হয় একটি অল্প বয়সী মেয়ের। যার নাম হংশীনি। তাকে তার পরিবার থেকে চাপ দিতে লাগে বিয়ে করার জন্য। কিন্তু সে কোনমতেই বিয়ে করতে রাজি ছিল না। তাই সেই লক্ষ্মী কাকিমার ছোট ছেলে কুনালের সাথে বিয়ের অভিনয় করে তাদের বাড়িতে এসে থাকতে শুরু করে।

কিন্তু এরপরেই লক্ষ্মী কাকিমা আর বাড়ির সকলে জেনে যান যে হংসিনী আর তার ছেলে কুনালের বিয়েই হয়নি। এটা শুনে তিনি মনে মনে ভীষণই কষ্ট পান। বর্তমানে ধারাবাহিকে দেখানো হচ্ছে যে কুনালের সাথে হাংসীনির বিয়ের আয়োজন করা হয়েছে। আর ইতিমধ্যেই তাদের বিয়েও সম্পূর্ণ হয়েছে। কিন্তু এরই মধ্যে কথা উঠেছে অভিনেত্রী অভিনয় নিয়ে। বর্তমানে অপরাজিতার অভিনয় নিয়ে দর্শকের বেশ কয়েকটি অভিযোগ রয়েছে। দর্শকমল থেকে বলা হচ্ছে অপরাজিতা ও টেলিভিশনের নায়িকাদের মত অতিরিক্ত ন্যাকামি করা শুরু করেছেন। আগে তাঁর অভিনয় দেখতে ভালো লাগতো কারণ তিনি খুবই সাবলীল ও স্বাভাবিক অভিনয় করতেন কিন্তু এখন তিনি তা করছেন না। আর এই কারণেই ধারাবাহিকের প্রতিও দর্শকের টান কমেছে।

Back to top button