লুকিয়ে প্রেম করছেন সকলের প্রিয় ‘বকুল’, অকপটে স্বীকার করলেন ঊষসী

বাংলা সিরিয়ালের জগতে অতি পরিচিত মুখ ঊষসী রায়। টেলিপাড়ার অন‍্যতম জনপ্রিয় নাম বকুল। খুব বেশিদিন হয়নি অভিনয় জগতে এসেছেন এই অভিনেত্রী। এমনকি ঝুলিতেও রয়েছে মাত্র চারটি সিরিয়াল। তাও ইতিমধ‍্যেই তুমুল জনপ্রিয়তা পেয়ে গিয়েছেন ঊষসী। ‘মিলন তিথি’ ধারাবাহিকে অহনা চরিত্র দিয়ে ডেবিউ করেন টেলিধারাবাহিকে। এখানে শান্ত সুশীলা মেয়ের চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন। এই ধারাবাহিকে লক্ষী বৌমা হয়ে সকলের প্রিয় হয়ে ওঠেন। তারপর জি বাংলার ‘বকুল কথা’ ধারাবাহিকে পুরো উল্টো চরিত্রে অভিনয় করেন।

বকুল চরিত্রে অভিনয়ের জন্য বেশ খ্যাতি লাভ করেন ঊষসী। বকুলকথা ছিল বকুলের জীবনের গল্প। তাকে ঘিরেই বাকি চরিত্ররা আবর্তিত হয়। প্রথমদিকে বকুল ছিল এক গেছো মেয়ে। যার ঘরকন্নায় তার মনই ছিল না। তার সঙ্গে ঋষির যখন বিয়ে হয়। এই ধারাহিকের বকুল অর্থাৎ উষসী রায় যথেষ্ট জনপ্রিয়তা লাভ করেছেন। এই দুটো ধারাবাহিক পরপর হিট হওয়ার পর ডাক্তার কাদম্বিনীর জীবনীর ওপর ‘কাদম্বিনী’ ধারাবাহিকে অভিনয় করেন ঊষশী। কাদম্বিনী বেশিদিন না চললেও এই সিরিয়ালেও অভিনয় দিয়ে দর্শক মনে ছাপ ফেলেন অভিনেত্রী।

কাদম্বিনী শেষ হওয়ার পর এখনো নতুন কোনো সিরিয়ালে দেখা যায়নি তাঁকে। তবে ইস্কাবনের রানী নামে একটি ছবিতে অভিনয় করেছেন ঊষসী। সম্প্রতি জি বাংলার রান্নাঘরে হোলি স্পেশাল পর্বে সঞ্চালিকার ভূমিকায় হাজির হয়েছিলেন ঊষসী। এছাড়া হইচইতে টুরু লাভ সিনেমায় অভিনয় করে বেশ প্রশংসা পেয়েছেন। তবে এখন ধারাবাহিকে অভিনয় না করলেও টেলিভিশনের পর্দায় প্রায়ই দেখা পাওয়া যায়। কখনো অ্যাওয়ার্ড শো তো কখনো রিয়ালিটি শোতে সর্বত্রই বিরাজমান ঊষসী।

গত শনিবার রাত ৯ঃ৩০ তে দিদি নম্বর ওয়ানের মঞ্চে হাজির হয়েছেন ঊষসী ও তাঁর বান্ধবী। সেখানেই ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে রচনা প্রশ্নবাণে জর্জরিত হয়েছেন ঊষসী। প্রিয় অভিনেতা-অভিনেত্রীদের ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে দর্শকদের জানার আগ্রহ বরাবরের। আর সেই খবরই দর্শকের সামনে তুলে আনেন রচনা ব্যানার্জি। এবারে ঊষসীর কাছে প্রশ্ন ছুঁড়লেন রচনা। জিজ্ঞাসা করলেন মনের মানুষটি কে? উত্তরে অভিনেত্রী লজ্জা মুখে বললেন তাঁর মনের মানুষ নাকি অনেক দূরে থাকে।

এই কথা শোনার পর পাশ থেকে অভিনেত্রীর পিছনে লাগতে ভুললেননা অলিভিয়া, মিশমি আর কাঞ্চনারা। এরপর রচনা বললেন, যে সাত সমুদ্র তেরো নদী পারে থাকে। ঊষসীর এই সিক্রেট মনের মানুষের সঙ্গে ডোনাল্ট ট্রাম্পেরই তুলনা করেছেন কাঞ্চনা মল্লিক। যদিও এই পুরো বিষয়টাই মজার ছলেই ঘটেছে। এই সময়ে অভিনেত্রী কাজ ছাড়া অন্য কিছুই নিজের জীবনে ভাবতে চান না ঊষসী। তবে এই ভিডিও ভাইরাল হয় সোশ্যাল মিডিয়াতে।

বাংলা সিরিয়ালের জগতে অতি পরিচিত মুখ ঊষসী রায়। টেলিপাড়ার অন‍্যতম জনপ্রিয় নাম বকুল। খুব বেশিদিন হয়নি অভিনয় জগতে এসেছেন এই অভিনেত্রী। এমনকি ঝুলিতেও রয়েছে মাত্র চারটি সিরিয়াল। তাও ইতিমধ‍্যেই তুমুল জনপ্রিয়তা পেয়ে গিয়েছেন ঊষসী। ‘মিলন তিথি’ ধারাবাহিকে অহনা চরিত্র দিয়ে ডেবিউ করেন টেলিধারাবাহিকে। এখানে শান্ত সুশীলা মেয়ের চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন। এই ধারাবাহিকে লক্ষী বৌমা হয়ে সকলের প্রিয় হয়ে ওঠেন। তারপর জি বাংলার ‘বকুল কথা’ ধারাবাহিকে পুরো উল্টো চরিত্রে অভিনয় করেন।

বকুল চরিত্রে অভিনয়ের জন্য বেশ খ্যাতি লাভ করেন ঊষসী। বকুলকথা ছিল বকুলের জীবনের গল্প। তাকে ঘিরেই বাকি চরিত্ররা আবর্তিত হয়। প্রথমদিকে বকুল ছিল এক গেছো মেয়ে। যার ঘরকন্নায় তার মনই ছিল না। তার সঙ্গে ঋষির যখন বিয়ে হয়। এই ধারাহিকের বকুল অর্থাৎ উষসী রায় যথেষ্ট জনপ্রিয়তা লাভ করেছেন। এই দুটো ধারাবাহিক পরপর হিট হওয়ার পর ডাক্তার কাদম্বিনীর জীবনীর ওপর ‘কাদম্বিনী’ ধারাবাহিকে অভিনয় করেন ঊষশী। কাদম্বিনী বেশিদিন না চললেও এই সিরিয়ালেও অভিনয় দিয়ে দর্শক মনে ছাপ ফেলেন অভিনেত্রী।

কাদম্বিনী শেষ হওয়ার পর এখনো নতুন কোনো সিরিয়ালে দেখা যায়নি তাঁকে। তবে ইস্কাবনের রানী নামে একটি ছবিতে অভিনয় করেছেন ঊষসী। সম্প্রতি জি বাংলার রান্নাঘরে হোলি স্পেশাল পর্বে সঞ্চালিকার ভূমিকায় হাজির হয়েছিলেন ঊষসী। এছাড়া হইচইতে টুরু লাভ সিনেমায় অভিনয় করে বেশ প্রশংসা পেয়েছেন। তবে এখন ধারাবাহিকে অভিনয় না করলেও টেলিভিশনের পর্দায় প্রায়ই দেখা পাওয়া যায়। কখনো অ্যাওয়ার্ড শো তো কখনো রিয়ালিটি শোতে সর্বত্রই বিরাজমান ঊষসী।

গত শনিবার রাত ৯ঃ৩০ তে দিদি নম্বর ওয়ানের মঞ্চে হাজির হয়েছেন ঊষসী ও তাঁর বান্ধবী। সেখানেই ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে রচনা প্রশ্নবাণে জর্জরিত হয়েছেন ঊষসী। প্রিয় অভিনেতা-অভিনেত্রীদের ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে দর্শকদের জানার আগ্রহ বরাবরের। আর সেই খবরই দর্শকের সামনে তুলে আনেন রচনা ব্যানার্জি। এবারে ঊষসীর কাছে প্রশ্ন ছুঁড়লেন রচনা। জিজ্ঞাসা করলেন মনের মানুষটি কে? উত্তরে অভিনেত্রী লজ্জা মুখে বললেন তাঁর মনের মানুষ নাকি অনেক দূরে থাকে।

এই কথা শোনার পর পাশ থেকে অভিনেত্রীর পিছনে লাগতে ভুললেননা অলিভিয়া, মিশমি আর কাঞ্চনারা। এরপর রচনা বললেন, যে সাত সমুদ্র তেরো নদী পারে থাকে। ঊষসীর এই সিক্রেট মনের মানুষের সঙ্গে ডোনাল্ট ট্রাম্পেরই তুলনা করেছেন কাঞ্চনা মল্লিক। যদিও এই পুরো বিষয়টাই মজার ছলেই ঘটেছে। এই সময়ে অভিনেত্রী কাজ ছাড়া অন্য কিছুই নিজের জীবনে ভাবতে চান না ঊষসী। তবে এই ভিডিও ভাইরাল হয় সোশ্যাল মিডিয়াতে।