বাংলা সিরিয়াল

ভিতরে ভিতরে তাকে মেরে ফেলার পরিকল্পনা করা হচ্ছিল, অস্ত্রোপাচারের পর তা নিজেই সকলকে জানান অভিনেতা গৌরব রায় চৌধুরী

সম্প্রতি বোন টিউমার অস্ত্রপ্রচার থেকে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন টেলিভিশনের ছোটো পর্দার জনপ্রিয় মুখ গৌরব রায় চৌধুরী। বর্তমানে তিনি সুস্থ আছেন, অস্ত্রপ্রচার এর পর নতুন জীবন ফিরে পেয়েছেন বলে জানান তিনি। হাসপাতালের ডক্টরদের উদ্দেশ্যে অসংখ্য ধন্যবাদ জানিয়ে নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে একটি লেখা পোস্ট করেন। যেখানে লেখা ছিল “এই যুদ্ধে হার নিশ্চিত ছিল, হাতটার অর্ধেকের বেশি ড্যামেজ হয়ে যাওয়ার প্রবল সম্ভাবনা ছিল, কিন্তু ডাক্তার ছ’ঘণ্টা ধরে যুদ্ধ চালিয়ে শেষমেশ আমাকে আর আমার হাতটাকে জিতিয়ে দিলেন। ধন্যবাদটাও বোধ হয় কম হয়ে যাবে বলা… তাও ধন্যবাদ ডক্টর”।

ফেসবুক থেকে এই পোস্ট করার পরে অনেকেই তাকে অনেকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন এবং তার দ্রুত সুস্থ হয়ে ওঠার কামনা করেছেন। গৌরব জানিয়েছেন গত দুবছর ধরে একটি টিউমার ধীরে ধীরে তার শরীরের হাড় এর ভিতরে বেড়ে উঠছিল। যা তাকে মেরে ফেলার পরিকল্পনায় ছিল, কিন্তু ডাক্তার কৌশিক নন্দী ও তার টিমের প্রচেষ্টায় তিনি আজ নতুন জীবন ফিরে পেয়েছেন বলে জানান। গৌরব জানান ডাক্তারবাবু রোজ দিন হাজার হাজার মানুষকে নতুন জীবন দান করেন, ডাক্তারদের প্রতি তার অসম্ভব শ্রদ্ধা রয়েছে।

আপাতত কিছুদিনের জন্য পুরোপুরি বিশ্রামে থাকতে হচ্ছে গৌরবকে। তিনি চেয়েছিলেন অস্ত্রোপচারের ১৫ দিন পরে শুটিং ফ্লোরে ফিরবেন, কিন্তু ডাক্তারের নিষেধাজ্ঞা মেনে তাকে আপাতত এক মাস পুরোপুরি বিশ্রামে থাকতে হবে। গৌরবের এই সময়ে অনেক শুভাকাঙ্ক্ষী তার সুস্থ হয়ে ওঠার কামনা করেছেন তাদের সকলকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। হাসপাতাল থেকে নার্স এবং ডাক্তার দের সঙ্গে ছবি তুলে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেছেন গৌরব।

‘ওগো নিরুপমা’ ধারাবাহিকটি করার সময় তার বোন টিউমার ধরা পড়ে। তবে যেহেতু ধারাবাহিকের একদম শেষ পর্যায়ে চলে এসেছিল তাই জন্য ডাক্তারদের থেকে আর কিছুদিন সময় চেনেন গৌরব। তারপরে ধারাবাহিক শেষ হওয়ার কিছুদিনের মাথায় তার অস্ত্রোপচার হয়।

Back to top button