“ওর ওই চেহারা নিয়ে কিভাবে চান্স পেলো সিরিয়ালে” ফের চেহারা নিয়ে কটূক্তির স্বীকার হলেন দেশের মাটির “নোয়া”, দিলেন সপাটে জবাব

বহুবার নিজের গায়ের রঙের কারণে কটূক্তির স্বীকার হতে হয়েছে “দেশের মাটি” সিরিয়ালের ‘নোয়া’ কে। কখনো কালো কাক তো আবার কখনো কয়লা এই সবের সঙ্গে তুলনা করা হয়েছে অভিনেত্রীকে। প্রথম প্রথম খারাপ লাগলেও এখন অভস্থ হয়ে ওঠেছেন নায়িকা। শুধু তাই নয় সঙ্গে কড়া জবাবও দিতে শুরু করেছেন তিনি।

বেশ কিছুদিন আগে সোশ্যাল মিডিয়াতে একজন তাকে মন্তব্য করে লেখেন, “ওর ওই চেহারায় ও কিভাবে চান্স পেলো সিরিয়ালে” ওই মন্তব্যকারী আরো লেখেন, “টেলিভিশনের সমস্ত ষ্টার আমার ননদের বাড়িতে পার্টি করতে আসে, তোমার থেকেও আমাকে দেখতে অনেক বেশি সুন্দর।

এই সমস্ত মন্তব্য শুনে আর চুপ করে বসে থাকার পাত্রী নন শ্রুতি। সঙ্গে সঙ্গে মন্তব্যকারীকে প্রশ্ন করেন, আমি আপনাকেই চিনি না, তাতে আবার আপনার ননদ কে কি করে জানবো।

শ্রুতি আরো বলেন, যদি আপনার মনে হয় আপনি আমার থেকে শ্রেষ্ঠ তাহলে আপনিও আপনার যোগ্যতা প্রমান করুন, কেউ বারণ করেনি। নিজের প্রিয় অভিনেত্রীর হয়ে একজন ভক্তও সেই মন্তব্যকারীকে বলেন, “শুধু রূপ থাকলেই হয় না, সাথে অভিনয়ও জানতে হয়। ”

এই কথা শুনে মন্তব্যকারি আবার বলেন, “আমি চান্সও পেয়েগেছিলাম কিন্তু আমি নিজেই রিজেক্ট করে দি”, এই কথার উত্তরে শ্রুতি বলেন, “আমার সত্যি সেই কাস্টিং ডিরেক্টারের উপর দয়া হচ্ছে যে তিনি কিভাবে আপনাকে নিলেন, সাথে তিনি কতটা পরিমানে ভাগ্যবান যে আপনার সাথে কাজ না করার সৌভাগ্য পেয়েছেন।”

শ্রুতি দাস আজ যাকিছু আছেন পুরোটাই নিজের অভিনয়ের গুনে। অভিনেত্রী অভিনয়ের পাশাপাশি, গান, নাচ সবেতেই পারদর্শী।

অভিনয় জীবন শুরু করেন জি বাংলার ত্রিনয়নী দিয়ে তারপর তিনি সুযোগ পান ষ্টার জলসার দেশের মাটিতে। এখন দিব্বি নিজের অভিনয়ে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছেন শ্রুতি।

কিন্তু তার গায়ের রং নিয়ে সমালোচনা কোনোভাবেই পিছু ছারে না। যদিও এখন এই সবকিছু ছেড়ে নিজের পুরো ধ্যান দিয়েছেন অভিনয়ে। কিভাবে আরো ভালো কাজ করবেন সেই ভাবনাতেই মেতে এখন সবারপ্রিয় নোয়া।