বাংলা সিরিয়াল

বিয়ের রাতে ডোনা গাঙ্গুলীকে একটি বিশেষ উপহার দিয়েছিলেন সৌরভ গাঙ্গুলী, দাদাগিরির মঞ্চে ফাঁস হলো সত্যি

কিছু কিছু তারকা জুটি আমাদের সাধারণ মানুষের কাছে যেন আইডল হয়ে ওঠে। তাদের প্রেমের সম্পর্ক তাদের বিভিন্ন মুহূর্ত যেন আমাদের সাথে জড়িয়ে পড়ে। আর সেরকমই বাঙ্গালীদের অত্যন্ত প্রিয় একটি জুটি হলো সৌরভ গাঙ্গুলী এবং ডোনা গাঙ্গুলীর জুটি। আপামর বাঙালির কাছে বরাবরই প্রেম একটা সুন্দর একটি অনুভূতি। আর সেই জুটি যদি হয় বাংলার মহারাজা এবং তার স্ত্রী তাহলে তো কথাই নেই। প্রেমটা হয়েছিল বেহালার একটি পাড়ার দুই বিপরীত বাড়ির মধ্যে।

ছোটবেলা থেকেই দুজনের একসঙ্গে বড় হয়ে ওঠা একই পাড়ার মধ্যে ব্যাডমিন্টন খেলতেন সৌরভ এবং ডোনা তখন থেকেই বন্ধুত্ব শুরু এবং কৈশোর পেরিয়ে যখন দুজনে যৌবনে প্রবেশ করে তখন দুজনের মধ্যে তৈরি হয় প্রেমের সম্পর্ক। সৌরভ এবং ডোনার পরিবারের মধ্যে সম্পর্ক একেবারেই মিষ্টি ছিল না। বেশ কয়েক বছর সম্পর্কের কথা বাড়িতে জানানোর চিন্তা করে দুজনে। তবে ডোনা গাঙ্গুলীর বাড়ি থেকে একেবারেই সৌরভ গাঙ্গুলীর পরিবারের কাউকে পছন্দ করত না। তার জন্যই ১৯৯৬ সালে দুজনেই বাড়ি থেকে লুকিয়ে রেজিস্ট্রি অফিসে বিয়ে সেরে ফেলেন।

সৌরভ গাঙ্গুলীর বাড়ি থেকে যখন ডোনা গাঙ্গুলীর বাড়িতে তাদের সম্পর্কের কথা জানানো হয় তখন ডোনা গাঙ্গুলীর বাবা আর আপত্তি করেননি যতই হোক একজন ইন্ডিয়ান ক্রিকেট টিমের সুদর্শন খেলোয়াড় কে পছন্দ করেছে তার মেয়ে। এরপর ১৯৯৭ সালে ২১শে ফেব্রুয়ারি ধুমধাম করে তাদের বিয়ে হয়। সেই থেকে আজ পর্যন্ত দুজনে একসঙ্গে হাতে হাত রেখে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে হেঁটে চলেছেন। জীবনের সমস্ত বাধা বিপত্তি সুখ-দুঃখ এক সঙ্গে ভাগ করে নিয়েছেন। পেরিয়ে গিয়েছে ২৬ টা বছর।

বর্তমানে সৌরভ গাঙ্গুলী বিসিসিআইয়ের প্রেসিডেন্ট এবং বাংলার জনপ্রিয় রিয়েলিটি শো দাদাগিরি’র সঞ্চালক। দাদাগীরির মঞ্চে প্রতিদিনই থেকে আমজনতা থেকে শুরু করে সাধারণ মানুষ অনেকেই আসেন। এবার সামনে এসেছে জি বাংলা দাদাগিরি নতুন একটি ভিডিও। তাতেই দেখা যাচ্ছে রবিবারের দাদাগিরির পর্বে উপস্থিত রয়েছে জনপ্রিয় কিছু মুখ সেখানে উপস্থিত রয়েছেন জনপ্রিয় গায়ক সিধু। সেখানেই সিধু সকলের সামনে ডোনা গাঙ্গুলী পুরনো একটি সাক্ষাৎকারে লেখাপড়া শোনাচ্ছেন সকলকে। সাক্ষাৎকারে ডোনা গাঙ্গুলী জানিয়েছেন, ‘বিয়ের দিন রাতে সৌরভ আমার জন্য এক সারপ্রাইজ রেখেছিল। লর্ডসে খেলতে গিয়ে ‘ম্যান অফ দ্য ম্যাচ’ হয়ে সে যে সোনার ব্রিটিশ মুদ্রাটি পায় তাকে লকটে করে একটা মোটা সোনার চেন দিয়ে সুন্দর ডিজাইন করে রাতে সেটি আমার গলায় পরিয়ে দিয়েছিল’।

আর এই ঘটনাতেই লজ্জায় একেবারে লাল হয়ে গিয়েছিলেন সৌরভ গাঙ্গুলী। মাঠের সেই জেদি ক্রিকেটার যে বাস্তব জীবনে একজন প্রেমিক মানুষ তা স্পষ্ট হলো ঐদিন মঞ্চে। উল্লেখ্য ডোনা গাঙ্গুলী একজন জনপ্রিয় ওড়িশি নৃত্য শিল্পী। তার নাচের অসংখ্য ভক্ত রয়েছে দেশজুড়ে।

Back to top button