শেষ শ্রদ্ধার্ঘ্য: মোমের মূর্তি বানিয়ে অবাক করলেন আসানসোলের ভাষ্কর্য শিল্পী সুশান্ত রায়

অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের চলে যাওয়াটা এখনো আমাদের প্রত্যেকের কাছে না ভোলার মতন। ২০২০ সালে আমরা একে একে বহু প্রিয় তারকাকে চলে যেতে দেখেছি তার মধ্যে একজন অন্যতম ছিলেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়। প্রত্যেক বাঙালির মন খালি হওয়া ছাড়াও সিনেমা জগতেও একটা বড় ক্ষতি হয়ে গিয়েছে।

কখনো তিনি রবীন্দ্রনাথের ‘রাজা’ আবার কখনও সত্যজিৎ রায়ের প্রদোষচন্দ্র মিত্র। কখনো বা ‘ময়ূরবাহন’ থেকে ‘ময়ূরাক্ষী’। আবার কখনো ‘ক্ষিতদা’ থেকে ‘উদয়ন পণ্ডিত’। সবেতেই তিনি আমদের মনে থেকে গেছেন, হয়তো তাঁর জায়গাও বদল করা যাবে না। তাঁর মৃত্যুর পর বাংলার মানুষ নানান ভাবে তাঁকে মনে রাখার চেষ্টা করছেন। তারমধ্যে একটু অন্যভাবে তাঁকে মনে রাখার পথ খুঁজে পেলেন আসানসোলের ভাষ্কর্য শিল্পী সুশান্ত রায়।

তিনি নিজের বাড়িতে একের পর অসাধারণ মোমের মূর্তি বানিয়ে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন। আর তার বানানো এইসব তিনি স্থাপন করে রেখেছেন স্থানীয় বিদ্যাসাগর আর্ট গ্যালারিতে। অমিতাভ বচ্চন, বিরাট কোহলি, শাহরুখ খান, রোনাল্ডোর মতো বহু তাড়কাদের ল মূর্তি রয়েছে এই আর্ট গ্যালারিতে। বেশ কয়েক মাস আগে সুশান্ত সিং রাজপুতের মোমের মূর্তিও তৈরি করেছিলেন তিনি। আর এবার সেই তালিকায় জুড়ে গেছে অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের নাম। মূর্তি গড়ার কাজ শেষ হতেই তা মানুষের জন্য খুলে দেওয়া হয় ১৯ ডিসেম্বর। আর এই মূর্তিতেই রয়ে যাবে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের ফেলে আসা সব স্মৃতি।