বাংলা সিরিয়াল

‘কখনো মিঠাই কখনো পিলু! নিজের বউকে ছেড়ে ভাইয়ের বউদের নিয়ে টানাটানি করছে সোম-মল্লার! ওদের সাথে না নেচে বরং তোর্সা ও রঞ্জার দিকে নজর দিক’! সোম মল্লারের আচরণে ক্ষুব্ধ নেটিজেনদের একাংশ

জি বাংলার জনপ্রিয় দুই ধারাবাহিক হলো মিঠাই এবং পিলু আর এই দুই ধারাবাহিকেরই অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ সদস্য হলো ধ্রুবজ্যোতি সরকার। মিঠাই ধারাবাহিকের সিদ্ধার্থের বড় দাদা সোমের চরিত্রে অভিনয় করে ধ্রুব অন্যদিকে পিলু ধারাবাহিকে আহিরের ভাই মল্লারের চরিত্রে অভিনয় করছে ধ্রুব। একই সাথে দুটো ধারাবাহিকে দুটো ডিফারেন্ট চরিত্রে অভিনয় করে দর্শকদের মন জয় করে নিয়েছে এই অভিনেতা। কিন্তু বর্তমানে অভিনেতার কাণ্ডকারখানা মোটেই পছন্দ নয় দর্শকের।

বরং দর্শক রীতিমত ক্ষুব্ধ হয়ে আছে সোম ও মল্লারের প্রতি। অর্থাৎ এই দুই চরিত্রের অভিনেতা ধ্রুবজ্যোতি সরকারের উপর। কিন্তু কি কারণে দর্শকদের এই রাগ? কারণ ধ্রুবর রিল ভিডিও। অভিনেতা অভিনেত্রীরা প্রায়ই কাজের ফাঁকে ফাঁকে নানান রকম রিল ভিডিও বানান, এইসব রিল ভিডিও তৈরি করে তারা কাজের মধ্যে একটু আনন্দ আহ্লাদ খুঁজে পান। এখন দর্শকরা সবসময় ধারাবাহিকের নায়ক নায়িকা জুটিকেই রিল ভিডিওর মধ্যে খুঁজে বেড়ান, কেউ যদি ধারাবাহিকে নিজের হিরো কে ছেড়ে অন্য কোন জনের সাথে রিল ভিডিও তৈরি করেন তাতে দর্শকরা ক্ষুব্ধ হয়ে যান এমনটাই হয়েছে মিঠাই ও পিলুর ক্ষেত্রে।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by SOUMITRISHA (@soumitrishaofficial)

মিঠাই চরিত্রের অভিনেত্রী সৌমিতৃষা কুন্ডুর সাথে প্রায় রিল ভিডিও তৈরি করেন ধ্রুব। মাঝখানে পিলুতে যোগ দেওয়ার জন্য এই রিল ভিডিও তৈরি করা বন্ধ ছিল। সম্প্রতি আবার মিঠাই তে যোগ দিয়ে কিছুদিন আগেই সৌমিতৃষার সাথে একটি রেল ভিডিও বানিয়েছেন অভিনেতা আবার পিলু ধারাবাহিকেও পিলু অর্থাৎ মেঘার সাথে একটি নাচের ভিডিও পোস্ট করেন অভিনেতা।

এরপরই নেটিজেনদের বক্তব্য, কখনো মিঠাই কখনো পিলু না করে অন স্ক্রিন নিজের বউদের দিকে অর্থাৎ তোর্সা এবং রঞ্জার দিকে নজর দিক সোম ও মল্লার! নেটিজেনরা বলছেন সোম-মল্লার নিজের বউকে সামলাক! ভাইয়ের বউদের সাথে না নেচে! অনেকে আবার এই কমেন্টের প্রতিবাদ করে লিখেছেন, এইসব কমেন্ট দেখলে বোঝা যায় মানুষ অভিনয়কে কতটা বাস্তব ভেবে নেয় তাই তারা অভিনয়টাকেও জীবনের একটা অঙ্গ বানিয়ে ফেলেন। ভুলেই যান অভিনেতাদেরও একটা জীবন আছে।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by dhrubajyoti sarkar (@dhrubo.s)

Back to top button