বাংলা সিরিয়াল

খড়ির থেকে কাজ কেড়ে নিতে মরিয়া হয়ে উঠেছে ঋদ্ধিমান, ‘গাঁটছড়া’ ধারাবাহিকে নতুন চমক

বর্তমানে আবারও নতুন টুইস্ট নিয়ে হাজির হয়েছে গাঁটছাড়া ধারাবাহিক। নিত্যনতুন টুইস্ট দিয়ে দর্শকদের প্রতি আকর্ষণ তৈরি করাই এই ধারাবাহিকের মূল লক্ষ্য। তাইতো ধারাবাহিক শুরুর দিন থেকেই টিআরপি তালিকায় বেশ ভালো স্থানে রয়েছে। এই ধারাবাহিক শুরুর সময় থেকেই TRP তালিকার প্রথম স্থানে টানা ১৪ সপ্তাহ রাজত্ব করেছিল। এরপর কিছুটা ছন্দ পতন ঘটলেও আবার নিজের পুরনো জায়গায় ফিরে পেতে নানান ধরনের চমক আনা হচ্ছে ধারাবাহিকে।

যেমন ইতিমধ্যেই ধারাবাহিকে দেখানো হয়েছে যে রাহুল খড়ির প্রতি হিংসায় খড়ি দের ভট্টাচার্য দশকর্মা ভান্ডার ভেঙে চুরমার করে দিয়েছে। যেটা খড়িদের রুজি-রোজগারের একমাত্র পথ। আর ভাঙচুর করে সব দোষটা চাপিয়ে দিয়েছে ঋদ্ধিমান এর উপরে। ভাঙচুর করার সময় ইচ্ছে করে রাহুল ঋদ্ধিমান এর ভিজিটিং কার্ড ফেলে আসে সেই ঘটনাস্থলে। আর খড়ি সেটা হাতে পায় এবং ভেবে নেয় যে ঋদ্ধিমান হয়তো প্রতিশোধ নেওয়ার জন্য খড়িদের দোকান ভাঙচুর করেছে। আর মাঝ রাতেই সিংহ রায় বাড়িতে হাজির হয় খড়ি। সেখানে গিয়ে ঋদ্ধিমান কে সিংহ রায় বাড়িতে দাঁড়িয়ে যাচ্ছেতাই ভাবে কথা শুনিয়ে আসে। ঋদ্ধিমান বারবার নিজেকে নির্দোষ বলা সত্বেও খড়ি সেটা বিশ্বাস করেন আর বিশ্বাস না করাটাই স্বাভাবিক।

আর এই দিকে খড়ি ঋদ্ধিমান কে চ্যালেঞ্জ করে আসে সে সাত দিনের মধ্যে কাজ জোগাড় করে নিজেকে প্রমাণ করে দেবে। কিছুতেই কেউ তাকে আটকাতে পারবেনা। আর এরই মধ্যে সামনে আরে ধারাবাহিকের আগামী দিনের নতুন ভিডিও। এই ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় গাঁটছড়ার একটি ফ্যান পেজ থেকে আপলোড করা হয়। ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে যে ঋদ্ধিমান এবং কুনাল বেরিয়েছে খড়ির উপর নজর রাখতে। খড়ি নিজের কাজের সন্ধানে একটি দোকানে গিয়ে কাজ খোঁজে এবং সেই দোকানের মালিক খড়ি কে কাজ দিতে রাজি হয়। কিন্তু হঠাৎ সেখানে পৌঁছে যায় ঋদ্ধিমান এবং ঋদ্ধিমান এক লোককে দিয়ে খড়ির থেকে সেই কাজ ছিনিয়ে নেয়।

যার ফলে খড়ি কাজ পায় না আর তখনই ঋদ্ধিমান এর মুখোমুখি হয় খড়ি। এবারের দেখার অপেক্ষা এই ঘটনার পর কিভাবে রিএক্ট করে খড়ি কি হতে চলেছে আগামী দিনে? রাহুলের এই নোংরা মুখোশটা আদেও কি খড়ির সামনে আসবে নাকি ঋদ্ধিমান সারা জীবন দোষী হয়ে থেকে যাবে খড়ির কাছে।

Back to top button