বাংলা সিরিয়াল

রঞ্জাকে বেনারসে জলে ফেলে খু;ন করল বিন্দি! আর্তনাদ করতে করতে পাগল হয়ে গেল মল্লার! কান্নায় ভেঙে পড়লো মল্লার

জি বাংলার জনপ্রিয় ধারাবাহিক পিলু। এই ধারাবাহিকে পিলু ও আহিরের রসায়নের পাশাপাশি সম্প্রতি গুরুত্ব পাচ্ছে মল্লার ও রঞ্জার রসায়ন। মল্লার এবং রঞ্জা একে অন্যের প্রতি দুর্বল হয়ে পড়েছে,মল্লার ধীরে ধীরে বদলে যেতে শুরু করেছে। এই রকম সময় যখন রঞ্জা ভাবছে, সব কিছু ঠিক হয়ে যাবে। ‌ তখনই তাদের দুজনের সম্পর্কের মধ্যে চলে আসে বিন্দি।

বিন্দি এসে দাবি করে সে মল্লারের স্ত্রী। তার কথার স্বপক্ষে সে একটি ছবি এবং একজোড়া বালা দেখায় যেটা মল্লারের ঠাকুমার বালা। এরপর ধীরে ধীরে সে মল্লারের দাদুকে নিজের হাতের মধ্যে করে নেয় এবং মল্লারের দাদু ও মল্লারকে অবিশ্বাস করতে শুরু করে। এত অবিশ্বাসের মধ্যেও মল্লারের কথা যারা বিশ্বাস করেছিলো, যারা বিশ্বাস করেছিল বিন্দি সবটাই মিথ্যা কথা বলছে, তাদের মধ্যে অন্যতম ছিল আহির, পিলু আর রঞ্জা। মল্লারের দাদু যখন বিন্দির সাথে মল্লারের বিয়ে দেওয়ার তোরজোড় করে তখন মল্লারকে নির্দোষ প্রমাণ করতে রঞ্জা আহির, পিলু এবং মল্লার সবাই মিলে বেনারসে যায় বিন্দির বিরুদ্ধে তথ্য প্রমাণ জোগাড় করতে।

সেখানে গিয়ে অন্য একজনের সাথে বিন্দির বিয়ে করার কথা জানতেও পারে সে, কিন্তু বিন্দি বসু মল্লিক পরিবারের সবার চোখ এড়িয়ে বেনারসে পৌঁছে গিয়ে বিষয়টা ম্যানেজ করে দেয় এবং লোকটি মিথ্যা কথা বলে। এরপর সম্প্রতি দেখা যাচ্ছে যে বিন্দি বেনারসে একজন সন্ন্যাসিনীর বেশে রয়েছে এবং সেই বেনারসেই ঘাটে প্রদীপ ভাসাতে যাচ্ছে রঞ্জা। পিছনে আসছে পিলু আর ঘাটের একদম শুরুতে বসে আছে রঞ্জা আর আহির।

এরপর দেখা যায় যে, বিন্দি ধাক্কা দিয়ে জলে ফেলে দেয় রঞ্জাকে। মল্লার এরপর জলে ঝাঁপ দিলেও সে আর রঞ্জাকে খুঁজে পায় না। আহির নৌকা নামানোর কথা বলে। অন্যদিকে কান্নায় ভেঙে পড়ে মল্লার।

Back to top button