‘এই লড়াইয়ের শেষ কোথায়, এবার আমি হাঁপিয়ে উঠছি’, কষ্টে আছেন সকলের প্রিয় বাহা

করোনা আক্রান্ত অভিনেতা রণিতা দাস (Ranieeta Dash) ও তাঁর পরিবার। তিনদিন আগেই নিজের সোশ্যাল মিডিয়ায় এই খবর জানিয়েছিলেন রণিতা দাস।

হোম আইসোলেশনে ছিলেন তিনি, সঙ্গে তাঁর বাবা মা ও তাঁর দুই পোষ্য়। তিনি তাঁর পোস্টে লেখেন – ‘ আমি,আমার মা ও বাবা covid-19 positive, বাড়িতে দিদার ও ঠান্ডা লেগেছে,কিন্তু ওষুধ খেয়ে একটু সুস্থ আছেন।

শারিরীকভাবে আমরা সবাই খুব দুর্বল। ঠাকুমার কোনো সিম্পটম্পস নেই,তিনি সুস্থ।কিন্তু কদিন থাকবেন জানিনা, ওনার ফুসফুসের অবস্থা ভালো নয়,কিন্তু আমাদের আর কিছু করার নেই ।

আর আছে আমার দুই সন্তান ফাঙ্কি আর রোজি,এবং আর তাদের পাঁচটি ছানা।চিকিৎসক বলেছেন ওদের নিয়ে চিন্তার কিছু নেই।’ এর পাশাপাশি তিনি সকলকে সাবধানে এবং সতর্ক থাকার কথাও মনে করিয়ে দেন।

শেষ দশদিনে তাঁর সংস্পর্শে আসা সকলকে করোনা পরীক্ষা করিয়ে নেওয়ার অনুরোধও করেন অভিনেতা।

তিনি সব আপডেট নিজের পেজে শেয়ার করবেন বলেও জানান অভিনেতা। তাঁকে নিয়ে উদ্বেগে ছিলেন ফ্যানেরা। এরই মাঝে বৃহস্পতিবার সকালে তাঁর টাইমলাইনে ভেসে উঠল এই পোস্ট, তাতে লেখা – ‘এই লড়াইয়ের শেষ কোথায় আমি জানি না, তবে এবার আমি হাঁপিয়ে উঠছি।’

অভিনেতার পোস্ট দেখে তাঁর কমেন্ট বক্স ভরে ওঠে। উদ্বিগ্ন সকলেই শারিরীক অবস্থার কথা জানতে চান। এরপরই তিনি পোস্টে খোলসা করেন সব। তাঁরা বাবা, মা ও দিদা রয়েছেন হাসপাতালে।

তিনি একাই থাকছেন তাঁর বাড়িতে। সঙ্গে রয়েছে দুই পোষ্য ও পোষ্যর পাঁচ সন্তান। তাঁর শরীর খুব দুর্বল, তবে জ্বর নেই। তিনি জানান প্রত্যেকেই নিজের মত করে করোনার সঙ্গে লড়ছেন। লড়াইয়ের পুরো গল্প সুস্থ হয়ে জানাবেন রণিতা, লিখলেন পোস্টে।