বাংলা সিরিয়াল

নিজের অপমান সহ্য করতে না পেরে দক্ষিণেশ্বরের মন্দির এই মহাপ্রলয় শুরু করেন মা ভবতারিণী, রানী রাসমনির নতুন পর্ব দেখে উচ্ছ্বসিত হয়ে পড়লেন দর্শকেরা

জি বাংলার জনপ্রিয় ধারাবাহিক গুলির মধ্যে অন্যতম একটি হলো রানী রাসমণি ধারাবাহিক। দীর্ঘ চার বছর ধরে জি বাংলার পর্দায় ধারাবাহিক সম্প্রচারিত হয়ে আসছে। বর্তমানে রানী রাসমনির উত্তর পর্ব দেখানো হচ্ছে। যেখানে ঠাকুর শ্রীরামকৃষ্ণের সঙ্গে মা ভবতারিণীর লীলা খেলা দেখানো হচ্ছে। রামকৃষ্ণ এবং মা ভবতারিণী এই সম্পর্কের গল্প দর্শকদের বেশ পছন্দ। ধারাবাহিক প্রেমী নন এমন মানুষও এই ধারাবাহিক পছন্দ করেন। সম্প্রতি ধারাবাহিকে দেখানো হচ্ছে মা ভবতারিণী অর্থাৎ দক্ষিণেশ্বরের মন্দির এর আগমন ঘটেছে গিরিজানাথ নামের এক মহারাজের।

নিজের অলৌকিক শক্তির মাধ্যমে তিনি সবকিছুই নিজের হাতের মুঠোয় করতে পারেন। এই অহংকারে মা ভবতারিণী থেকেও নিজেকে বড় ভাবতে শুরু করেছেন তিনি। পঞ্চবটির জঙ্গলে গদাই ঠাকুর বিপদে পড়লে তাকে সাহায্য করতে চায় সে। এইসব করেই সে মা ভবতারিণী কে ছোট করছে সকলের কাছে। কিন্তু এই কথা গদাই ঠাকুর বারবার তাকে বোঝানো সত্ত্বেও তিনি বুঝতে নারাজ বারবার নিজের পিঠ থেকে সেই জ্যোতি বার করে নিজেকে মহান প্রমাণ করার চেষ্টা করছে সে। একদিন ঘটনাচক্রে তার সেই আলো গিয়ে পৌঁছয় দক্ষিণেশ্বরের মন্দিরে মা ভবতারিণীর কাছে।

আর তারপরই শুরু হয় মহাপ্রলয়। চারিদিকে ঝড় বৃষ্টি শুরু হয়ে যায়। আর ততক্ষণে সেই মহারাজ কে নিয়ে দক্ষিণেশ্বরের মন্দির উপস্থিত হয় গদাধর। সেখানে এসেই তিনি সমস্ত কিছু লন্ডভন্ড অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখতে পান এবং মা ভবতারিণী স্বয়ং তার সামনে এসে হাজির হন। মা তার সামনেই তাণ্ডব শুরু করেন। নিজের তান্ডব শুরু করার আগেই তিনি গিরিজানন্দ মহারাজকে অজ্ঞান করে দেন।

Back to top button