বাংলা সিরিয়াল

‘সিংহরায় বাড়িতে আর আপনার জায়গা নেই’, আবারো খড়ি কে ভুল বুঝল ঋদ্ধিমান, সামনে এল ‘গাঁটছড়া’ ধারাবাহিকের নতুন প্রোমো ভিডিও

জমে উঠেছে স্টার জলসার ‘গাঁটছড়া’ ধারাবাহিক। ধারাবাহিকে ভট্টাচার্য্য বাড়ির তিন বোন এবং সিংহ রায় বাড়ির তিন ভাইয়ের জীবন নিয়েই তৈরি হয়েছে এই ধারাবাহিক। ধারাবাহিকের প্রথমেই দেখানো হয় ভট্টাচার্য বাড়ির বড় মেয়ে দ্যুতি ভট্টাচার্য সঙ্গে বিয়ে ঠিক হয় সিংহ রায় বাড়ির বড় ছেলে ঋদ্ধিমান সিংহ রায়ের সাথে কিন্তু ভাগ্যের পরিহাসে বিয়ের মন্ডপের ভট্টাচার্যের বাড়ীর মেজো মেয়ে খড়ির সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধেন। যেখানে প্রথম থেকে ঋদ্ধিমান এবং খড়ির সম্পর্ক তিক্ত। তাই কারো পক্ষেই বিয়েটা মেনে নেওয়া সম্ভব হয়নি কিন্তু ধীরে ধীরে খুনসুটি, ঝগড়া ঝাটি সবকিছুর মধ্যে দিয়েই দুজনে কাছাকাছি আসছে।

বর্তমানে ধারাবাহিকের গল্পে দেখানো হচ্ছে যে ইতিমধ্যেই নিজের প্রেগনেন্সি ভুয়ো রিপোর্ট বানিয়ে সিংহ বাড়ির বউ হয়েছে দ্যুতি রাহুলকে বিয়ে করতে বাধ্য করেছে। কিন্তু অন্যদিকে দ্যুতির ভুয়ো প্রেগনেন্সি রিপোর্ট ঘুনাক্ষরে কেউ জানতে পারে না। খড়ি মাঝেমধ্যে সন্দেহ করলেও নিজের সন্দেহটা কোনভাবে সঠিক বলে জানতে পারেনা। কিন্তু এবারে দ্যুতি এবং রাহুলের সঙ্গে একসাথে দ্বিরাগমন এসেছে খড়ি এবং ঋদ্ধিমান যাতে রাহুল আর কোনো রকম কোনো অসভ্যতা করতে না পারে দ্যুতির সাথে। আসলে দ্যুতি কে বিয়ে করে রাহুল ভিনির সঙ্গে বাইরে অন্য সম্পর্ক রাখে এবং সেটা দেখে ফেলে ঋদ্ধিমান, খড়ি এবং দ্যুতি। তাই জন্যই রাহুলকে চোখে চোখে রাখার দায়িত্ব নিয়েছে ঋদ্ধিমান নিজে।

এবারে ধারাবাহিকের আগামী পর্বে দেখানো হচ্ছে যে খড়ি, ঋদ্ধিমান, রাহুল এবং দ্যুতি দ্যুতিদের বাড়িতে গিয়ে উপস্থিত হয়েছে এবং সেখানেই খড়ির হাতে সঞ্জয় একটি চিঠি পাঠায় এবং সেখানে সে লিখে দেয় যে দ্যুতির মিথ্যের পর্দা খুলে দেওয়ার জন্য দ্যুতি যেখানে প্রেগনেন্সি রিপোর্ট তৈরি করেছে সেখানে যেতে হবে আর এই চিঠি পেয়ে খড়ি অবাক হয়ে যায়।

আর এরই মধ্যে সামনে এসে যায় ধারাবাহিকের নতুন প্রমো ভিডিও। ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে রীতিমতো খড়ির উপর রেগে আগুন হয়ে আছে ঋদ্ধিমান। রাগের মাথায় ঋদ্ধিমান খড়ি কে বলছে যে খড়ি জেনেশুনে তার দিদির প্রেগনেন্সির মিথ্যে রিপোর্ট বানিয়ে রাহুলের সঙ্গে দ্যুতির বিয়ে দিয়েছে। তাই এবার থেকে সিংহ রায় বাড়ি দরজা খড়ির জন্য চিরকালের মতো বন্ধ। কিন্তু খড়ি ঋদ্ধি কে বোঝানোর চেষ্টা করে যে ঋদ্ধিমান তাকে ভুল বুঝে তার উপর মিথ্যা অপবাদ দিচ্ছে। কিন্তু ঋদ্ধিমান শুনতে নারাজ। এবার দেখার অপেক্ষা আগামী দিনে ধারাবাহিকে কি হতে চলেছে।

Back to top button