বাংলা সিরিয়াল

বাবার পর আবার খুব কাছের মানুষ কে হারালেন রচনা ব্যানার্জী! শোকের ছায়া অভিনেত্রীর জীবনে

গতবছরের শেষের দিকেই বাবাকে হারিয়েছেন অভিনেত্রী রচনা ব্যানার্জী। বাবাকে হারিয়ে রীতিমতো শোকে ভেঙে পড়েছিলেন তিনি। কিছুতেই শোক কাটিয়ে উঠতে পারছিলেন না। তবে দর্শকদের ভালোবাসায় এবং চাহিদায় তিনি আবারও কাজে ফিরেছিলেন। তবে সম্প্রতি অভিনেত্রী হারালেন তার আরও এক প্রিয় মানুষকে। আবারো শোক পেলেন তিনি।

টলিউডের এক সময়ের দাপুটে নায়িকা ছিলেন রচনা ব্যানার্জী। তবে পরবর্তীকালে তিনি অভিনয় জগত থেকে দূরে সরে এসেছেন। বর্তমানে জি বাংলার অন্যতম জনপ্রিয় গেম রিয়্যালিটি শো ‘দিদি নম্বর ১’এর সঞ্চালনার দায়িত্বে রয়েছেন। দীর্ঘদিন ধরে তাকে সঞ্চালনা করতে দেখা যাচ্ছে টেলিভিশনের পর্দায়। বলাই বাহুল্য, জনপ্রিয় রিয়্যালিটি শোয়ের তালিকায় রচনা ব্যানার্জী সঞ্চালিত ‘দিদি নম্বর ১’ অন্যতম।

বাবাকে হারানোর পর অনেক কষ্টে শোক কাটিয়ে আবারো সঞ্চালনার কাজে ফিরেছিলেন অভিনেত্রী। হাসিমুখেই চালাচ্ছিলেন সঞ্চালনা। কিন্তু বছর শুরু হতে না হতেই আরো এক প্রিয়জন হারা হলেন অভিনেত্রী। তিনি অভিনেত্রীর পরিবারের সদস্য না হলেও, অভিনয় জগতের সূত্রে তার খুব ঘনিষ্ঠ মানুষ ছিলেন তিনি। তিনি ওডিয়া ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির জনপ্রিয় অভিনেতা মিহির দাস। ওডিয়া ছবির পাশাপাশি একাধিক বাংলা ছবিতেও অভিনয় করেছেন তিনি। মঙ্গলবার, ১১’ই জানুয়ারি কটকের এক হাসপাতলে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন অভিনেতা।

জানা গেছে, মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৬৩। টলিউডের অভিনেত্রী রচনা ব্যানার্জীর সাথে একাধিক হিট ছবিতে অভিনয় করেছেন মিহির দাস। অভিনেতার সাথে ওডিয়া ছবিতেও বহুবার দেখা মিলেছে অভিনেত্রীর। হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েই মৃত্যু হয়েছে অভিনেতার। অনেক চেষ্টা করেও বাঁচানো যায়নি অভিনেতাকে। কয়েক মাস আগেও হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েছিলেন অভিনেতা। তখন দীর্ঘদিন হাসপাতালে থাকতে হয়েছিল তাকে। হৃদয়ের সমস্যার পাশাপাশি কিডনির সমস্যাতেও ভুগছিলেন তিনি। চলেছে ডায়ালিসিসও। ভেন্টিলেশনেও রাখা হয়েছিল তাকে। তবে সবার সমস্ত চেষ্টা বৃথা করে দিয়ে ১১’ই জানুয়ারি না ফেরার দেশে চলে গিয়েছেন অভিনেতা মিহির দাস। শোকোস্তব্ধ গোটা ওডিয়া ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিও।

Back to top button