বউ নয় বরং শাশুড়ির রোলে বেশি মানাতো! ৫৮ বছরের দেবশ্রী রায়কে ‘সর্বজয়া’ মানতে নারাজ নেটদুনিয়া

সিনেমা জগৎ থেকে বহুদিন অনুপস্থিত থাকার পর অবশেষে স্টার জলসার ধারাবাহিক ‘সর্বজয়া’ দিয়ে ছোট পর্দায় ফিরছেন অভিনেত্রী দেবশ্রী রায়। নানান ইন্টারভিউতে তিনি জানিয়েছিলেন ‘সর্বজয়া’ ধারাবাহিকে তার চরিত্রটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ হওয়ার কারণেই তিনি এই ধারাবাহিকটি করতে রাজি হয়েছিলেন।

কিন্তু বাস্তবে দেখা গেল ‘সর্বজয়া’র ট্রেলার রিলিজ হতেই নেটিজেনদের একাংশ দেবশ্রীকে সর্বজয়ার মুখ্য ভূমিকায় অর্থাৎ বউমা হিসেবে মানতে নারাজ। পোস্টটির কমেন্ট সেকশনে অনেকেই নিজেদের বিরূপ মন্তব্য জানাতে দ্বিধা বোধ করেননি।

অনেক নেটিজেন আবার নিজেকে দেবশ্রী রায়ের অনুগামী বলে পরিচয় দিয়ে লিখেছেন এই রোলটি করা একেবারেই উচিত হয়নি অভিনেত্রীর, ৫৮ বছরের দেবশ্রী রায়কে সর্বজয়া দেখে নেটিজেনদের মধ্যে কারোর বক্তব্য বৌমা নয় বরং শাশুড়ি কিংবা পিসি শাশুড়ি হলে বেশি মানাতো দেবশ্রীকে।

কেউ বা আবার মেকআপ আর্টিস্ট এর উপর দোষ চাপিয়ে বলেছেন যে মেকআপ আর্টিস্ট এর দোষেই বয়স্ক লাগছে দেবশ্রীকে। নেটিজেনদের একটি বড় অংশ মন্তব্য করেছেন দেবশ্রী রায় তাদের প্রিয় অভিনেত্রী হলেও ধারাবাহিকের অন্যান্য অভিনেতাদের বয়সের অনুপাতে দেবশ্রীকে অনেকটাই ‘বুড়ি’ লাগছে।

তবে সমালোচনার পাশাপাশি প্রশংসায় ভরিয়ে দিয়েছেন তার অনুগামীদের একদল। তারা জানিয়েছেন সর্বজয়ার ভূমিকায় অভিনয় করতে হলে জানতে হত নাচ। এবং সে দিক থেকে দেবশ্রী রায় একজন অত্যন্ত প্রতিভাবান নৃত্য শিল্পী। তাই এই ভূমিকাতে তিনি একেবারে মানানসই।

তবে অনেক নেটিজেন কিন্তু বলছেন সিনেমা জগৎ থেকে উধাও হয়ে গিয়ে দেবশ্রী যে রাজনৈতিক ক্যারিয়ারে মন দিয়েছিলেন হতে পারে সেই রাজনৈতিক জগতের চাপই তার সৌন্দর্যে অনেকাংশে বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে।