বাংলা সিরিয়াল

বাবার মৃত্যুর পর নন্দিনীর পাশে এসে দাঁড়ালো বিমল! বিমলের বাড়িতে খাওয়া নিয়ে খোঁটা শুনতে হল নন্দিনীর ভাইকে! নন্দিনী কি পারবে আবার ঘুরে দাঁড়াতে?

স্টার জলসার জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘নবাব নন্দিনী’তে বর্তমানে দেখানো হচ্ছে যে নন্দিনীর বাবা এস আর কের মৃত্যু হয়েছে আচমকা। মেয়ের বিয়ের রাত্রে দেউলিয়া হয়ে নিজের বাড়িটুকু হারানোর শোক তিনি ভুলতে পারেননি। এই আঘাত সামলাতে না পেরে হার্ট অ্যাটাক হয় তার আর তারপরেই মারা যান তিনি। এই ধারাবাহিকে এস আর কের চরিত্রটা খুব মজাদার ছিল। ধারাবাহিকে দেখানো হতো অর্থের অহংকারে অহংকারী হলেও মেয়েকে পাগলের মতো ভালোবাসতেন এস আর কে। তাই তার মৃত্যুটা মানতে পারছিলেন না দর্শকরাও।

এরপর ধারাবাহিকে একটি সাম্প্রতিককালের প্রোমো দেখানো হয়েছে‌। যে প্রমোতে দেখানো হচ্ছে নন্দিনীদের এখন আর কিছুই নেই এবং দাঁড়ানোর মতো কোন জায়গা নেই। এমন পরিস্থিতিতে নন্দিনীর বাবার মৃত্যুর পর নন্দিনীর পাশে এসে দাঁড়ায় বিমল। এই বিমল নন্দিনীর বাবার ছোটবেলাকার বন্ধু, এই বিমলকেই একদিন নন্দিনীর বাবা অর্থের অহংকারে অহংকারী হয়ে বন্ধুর সাথে খারাপ ব্যবহার করেছিল তখন বিমলের স্ত্রী সবার সামনে নন্দিনীর বাবা এসআরকে কে অভিশাপ দিয়েছিল যে একদিন সে পথের ভিখারী হয়ে যাবে আর তার সমস্ত অর্থ সম্পদ চলে যাবে।

সেই সময় নন্দিনীর বাবা এই অভিশাপ কে গুরুত্ব না দিলেও পরবর্তীকালে এই অভিশাপে তার জীবনের সত্যি হয়ে দাঁড়িয়ে মৃত্যুর কারণ হয়ে দাঁড়ায়। ধারাবাহিকে দেখানো হচ্ছে যে এরপর বিমলের বাড়িতে নন্দিনীর পুরো পরিবার উঠলে নন্দিনীর ভাইয়ের খিদে পেয়েছে শুনে বিমলের স্ত্রী বলে বাবাকে খেয়েও খিদে মেটে নি আবার খেতে হবে! এরপর নন্দিনী কাকিমাকে বলে, আমি কথা দিচ্ছি তোমাদের বাড়িতে বেশি দিন থাকবো না, খুব শিগগিরই কিছু একটা জোগাড় করে এখান থেকে চলে যাব।অন্যদিকে নবাব তার বড় বৌদিকে বলে, হতেও তো পারে আমার স্ত্রী সমস্ত অর্থে তোমার থেকে বেটার হলো। নন্দিনীর বড় বৌদি তখন বলে আমি এটা কিছুতেই হতে দেব না।

Back to top button