বাংলা সিরিয়াল

‘নতুন ট্র্যাক নয় ২৪ ঘন্টা আগে এপিসোড আপলোডের ফল ভুগতে হলো মিঠাইকে!’ মিঠাই টিআরপির শীর্ষস্থান থেকে তলানীতে চলে যাওয়ায় আক্ষেপ করলেন এক মিঠাই ভক্ত!

জি বাংলার জনপ্রিয় ধারাবাহিক মিঠাই। এই ধারাবাহিক ৫৫ বার বঙ্গ সেরা হয়েছে। দেড় বছরেরও বেশি সময় ধরে এই ধারাবাহিক টিআরপি ধরে রেখেছে তবে এই সপ্তাহে দেখা গেলো ধুলোকণার কাছে স্লট হারিয়ে ফেলেছে
মিঠাই। তবে বঙ্গ সেরা ৫ ধারাবাহিকের মধ্যে পঞ্চম স্থানে আছে এই ধারাবাহিক। এই ধারাবাহিকের টিআরপি হল ৬.৬, যা অনেকটাই কম। তবে দীর্ঘ সময় ধরে চলা এই ধারাবাহিক এতগুলো সময় ধরে নিজের জনপ্রিয়তা ধরে রাখতে সক্ষম হয়েছে তাই বা কম কি! তবে এমনটা যে হবে অনেকটাই আঁচ করা গিয়েছিল।

বিগত কয়েক সপ্তাহ ধরে এই ধারাবাহিকের টিআরপি একটু একটু করে কমে যাচ্ছিল। তাই বলে এই সপ্তাহে যে স্লট হারাবে এই ধারাবাহিক তা বোঝা যায় নি। টিআরপি তালিকা শীর্ষস্থান থেকে বর্তমানে বঙ্গ সেরা ৫ টি ধারাবাহিকের মধ্যে পঞ্চম স্থানে রয়েছে মিঠাই, ধুলোকনার কাছে হারিয়েছে রাত আটটার স্লট। এর কারণ হিসেবে ভক্তরা মনে করছেন যে মিঠাইয়ের সাম্প্রতিককালের ট্রাক এবং চ্যানেলের প্রোমো না দেওয়ার জন্য এমনটা হয়েছে।

সম্প্রতি মিঠাইতে প্রমিলা লাহা নামে একজন নতুন ভিলেনকে দেখানো হচ্ছে যে আসার পর থেকে ধারাবাহিকে তাদের পরিবারের সমস্যার বদলে বাইরের সমস্যাগুলো তুলে ধরা হচ্ছে। দর্শকরা মনে করেন মিঠাই ধারাবাহিকটি একান্নবর্তী পরিবারের জন্যই জনপ্রিয় তাই দর্শকদের মধ্যে থেকে একটা বিরাট অংশের মানুষ পারিবারিক গল্প দেখতেই পছন্দ করেন। তারা তাই মিঠাইয়ের লেখিকাকে অনুরোধ করছেন, খুব শীঘ্রই যেন মিঠাইতে পুরনো গল্পের রেশ ফিরিয়ে আনা হয়।

একজন আবার লিখেছেন,“ একটা সিরিয়ালে যদি টি আর পি ইফেক্ট ফেলতে পারে তাহলে প্রমোশন অবশ্যই ম্যাটার করে, মিঠাই যখনই টানা টপার হতে থাকে তখনই জি কাকু আগের দিন রাতে অনলাইনে এপিসোড টেলিকাস্টে দেয়,আবার অনির্দিষ্টকালের জন্য প্রোমোশন অফ করে,সাথে প্রোমো দেওয়ার কোনো বালাই নেই,এখানে রাইটারের কোনো দোষ অন্তত আমি দেখি না, আর ট্র্যাকগুলো খুবই ভালো হচ্ছে। মিঠাই ফ্যানদের বলছি-আন কথায় কান দেয়ার দরকার নাই। জি কি চায়, সেটা সবাই জানে,আর রইল মিঠাই এর কথা, আবারও বেঙ্গল টপার হবে, মিঠাই এর সে দম আছে, শেষ থেকে শুরু হবে,জয় গোপাল”

Back to top button