বাংলা সিরিয়াল

মাধবীলতার অবর্তমানে জংলা হাটার গাছ কেটে সাফ করে দিতে বলল পুষ্প রঞ্জন! সবকিছু জানতে পেরে সবুজকে কী বলল মাধবী?

স্টার জলসার জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘মাধবীলতা’। এই ধারাবাহিকে কিছুদিন আগেই দেখানো হয়েছিল যে, মাধবীলতার মুখে নারীবাদী সংলাপ শুনে ধন্য ধন্য করছে নেটিজেনরা। বন্য মেয়ে মাধবীলতাকে ভালোবেসে বিয়ে করে সবুজ। কিন্তু তার বাড়ির লোক মাধবীলতাকে বউ হিসেবে মানতে নারাজ তারা মাধবীলতাকে সিকিউরিটি গার্ড দিয়ে বার করে দিতে চায় তখন মাধবীলতা বলে যে, রামায়নে রামচন্দ্র আর মহাভারতে কৃষ্ণ বাড়ির ব‌উদের ওপর অন্যায় হলে প্রতিকার করতে এসেছিলেন কিন্তু এ যুগে বাড়ির বধূরা তাদের সাথে হ‌ওয়া অন্যায়ের প্রতিকার নিজেরাই করতে পারে!- এই বলে সিকিউরিটি গার্ডদের টেনে চড় মারে সে।

মাধবীলতা ধারাবাহিকে দেখা যায় মাধবী গাছ অন্ত প্রাণ একটি মেয়ে। জঙ্গল কে সে তার প্রাণ বলে জানে আর গাছ তার মা। এই মাধবী গাছেদের চোরাচালান কারীর হোতা পুষ্প রঞ্জনের গাছ কেটে পাচার করার কথা বনদপ্তর এর কানে তুলে দিয়েছে। তাই মাধবীকে শিক্ষা দেওয়ার জন্য পুষ্প রঞ্জন কোন কিছু না জেনেই সবুজকে আদেশ দেয় মাধবীকে বিয়ে করে নিয়ে আসার।

অন্যদিকে সবুজ শুরু থেকেই মাধবীকে ভালবাসে কিন্তু মাধবী তাকে বলে তার ভালোবাসা পেতে গেলে বিশ্বাস জয় করতে হবে। এরপর পুষ্প রঞ্জন তার লোকেদের নিজেই অ্যারেস্ট করিয়ে দেয়, জংলা হাটায় গাছ কাটা বন্ধ হয়ে যায় মাধবী বিশ্বাস করে বিয়ে করে সবুজকে যদি ওই সবটাই ছিল পুষ্প রঞ্জনের চাল। সম্প্রতি প্রোমোতে দেখানো হচ্ছে মাধবীলতা জংলা হাটা থেকে চলে আসতে পুষ্প রঞ্জন ফোন করে বলছে জংলা হাটা সমস্ত গাছ কেটে ফেলতে।

অন্যদিকে মাধবী সবুজকে বলে আপনি আমাকে ভালবাসলেও আমি কিন্তু বাজি ধরে আপনাকে বিয়ে করেছি, কৃতজ্ঞতার জন্য বিয়ে করেছি। সবুজ বলে ডোন্ট ওয়ারী আমি অপেক্ষা করবো।

Back to top button