বাংলা সিরিয়াল

আগুনের মধ্যে আটকে দুলাল! ৮ টা লক্ষীস্টোর পুড়ে ছাই হলো হংসিনীর বাবার ষড়যন্ত্রে! ডিজাস্টারের প্রোমো দিয়ে লক্ষ্মী কাকিমা আদৌও এঁটে উঠতে পারবে তো মাধবীলতার সাথে? উঠছে প্রশ্ন!

জি বাংলার ‘লক্ষী কাকীমা সুপারস্টার’এ লক্ষ্মী কাকিমা অনবদ্যভাবে সকলের মন জয় করে নিয়েছেন। তিনি এমন একজন মহিলা যিনি মধ্য বয়সে এসেও হার মানতে শেখেন নি। যে কোনো পরিস্থিতিতে তিনি একাই ১০০। যাকে বলা হয় মা দুর্গার মতো তিনি একা গোটা পরিবার সামলাচ্ছেন, ব্যবসা সামলাচ্ছেন যখন যেখানে ফুটো হচ্ছে সেখানেই এসে ছাতা ধরছেন। লক্ষ্মী কাকিমার লক্ষ্মী স্টোর্স বলে এটি দোকান আছে এই দোকান নিয়ে তার অনেক স্বপ্ন যে দিকে দিকে এরকম দোকান খুলবে।

এই দোকানের স্বপ্ন এই দোকানকে বড় করার কথা তাকে প্রথম দেখিয়েছিল হংসিনী। এই স্বপ্নকে সত্যি করার কথা ভেবেছে এবং বিশ্বাস করতে শুরু করেছে এবং এই স্বপ্নের পথে এগিয়ে গেছে হাজারো লড়াই করে। কিন্তু সম্প্রতি এই স্বপ্নই যেন ভেঙে গেল। তার স্বপ্ন যখন একটু একটু করে ডানা মেলে আকাশে উঠে যাচ্ছিল তখনই ষড়যন্ত্রকারীরা সেই স্বপ্নটা ভেঙে দুমড়ে মুছড়ে দিল। এবার কীভাবে ঘুরে দাঁড়াবেন লক্ষী রাখি মাসে, সেটাই দেখার!

সাম্প্রতিক কালে লক্ষ্মী কাকীমা যে প্রোমা দিয়েছে সেটাকে এক অর্থে ডিজাস্টার প্রোমো বলা যায়। এই প্রোমো তে দেখানো হচ্ছে যে একই দিনের লক্ষ্মী কাকিমার আট জায়গায় আটটি লক্ষ্মী ভান্ডার উদ্বোধন হচ্ছে। লক্ষ্মী কাকিমা অত্যন্ত আনন্দের সঙ্গে একটি জায়গায় এসেছেন দোকান উদ্বোধন করতে।

সেখানে এসে তিনি দেখেন সেই স্টোর্সে বোম ফিট করা ছিল এবং তা ব্লাস্ট হয়। এরপর তিনি খবর পান শুধু এইটাই নয় এছাড়া তার আরও যে সাতটি স্টোর্স আছে মোট আটখানা লক্ষী ভান্ডারেই ব্লাস্ট হয়েছে। এই সময় হাঁস জানায় যে এই আটটি স্টোর্সের মধ্যে একটি স্টোর্সের মধ্যে দুলাল আছে। অন্যদিকে দেখা যায় এই পুরো ষড়যন্ত্রের পিছনে আছে হংসিনীর বাবা! এইবার কিভাবে এই মহা সংকটকে জয় করবে হংসিনী আর লক্ষী কাকিমা তাই দেখার! অন্যদিকে একই সাথে প্রশ্ন উঠছে যে এই ডিজাস্টার প্রোমো দিয়ে মাধবীলতার সাথে আদৌ এঁটে উঠতে পারবে তো লক্ষী কাকিমা?

 

View this post on Instagram

 

A post shared by mithai prem (@mithailoves)

Back to top button