বাংলা সিরিয়াল

ঘরে বউ রেখে বাইরে পরকীয়া মত্ত ‘অপরাজিতা অপু’ ধারাবাহিকের সেজো ছেলে, এবারে নিজের বুদ্ধি দিয়ে হাতেনাতে জামাইবাবুকে ধরল অপু

বর্তমানে বিনোদন জগতের অন্যতম অংশ হলো ধারাবাহিক। সারাদিনের ক্লান্তি দূর করতে আমাদের একটুখানি রিলিফ দেয় এই ধারাবাহিক গুলি। নিজেদের পছন্দের ধারাবাহিক গুলি দেখে তারা সারাদিনের ক্লান্তি দূর করেন।

জনপ্রিয় ধারাবাহিক গুলির মধ্যে অন্যতম হলো জি বাংলার ‘অপরাজিতা অপু’। বর্তমানে এই ধারাবাহিক TRP তালিকায় প্রথম সারিতেই রয়েছে। দর্শকদের প্রিয় ধারাবাহিকগুলোর মধ্যে এই ধারাবাহিকও অন্যতম।

ধারাবাহিকে নায়িকার ভূমিকায় আমরা দেখতে পাচ্ছি নবাগতা অভিনেত্রী সুস্মিতা দে। সুস্মিতার বিপরীতে অভিনয় করছেন সকলের পরিচিত রোহান ভট্টাচার্য্য। সাহসী দুষ্টু-মিষ্টি চরিত্রে অপুর চরিত্র খুব দারুণ ভাবে ফুটিয়ে তুলেছেন সুস্মিতা, আর অল্প দিনের মধ্যেই দর্শকদের মন জয় করেছেন তিনি। অভিনয় জগতে এটাই সুস্মিতার প্রথম কাজ। এর আগে তিনি মডেলিং করতেন। আর রোহান এর আগেও টেলিভিশনের পর্দায় কিছু কাজ করেছে।

সম্প্রতি ধারাবাহিকে দেখানো হচ্ছে যে মুখোশের আড়ালে লুকিয়ে থাকা অপু তার দিদির জামাইবাবুর গোপন সম্পর্কের কথা জেনে গিয়েছে। আর সেই সত্যিটা সকলের সামনে আনতে অপু কে সাহায্য করছে দীপু। ধারাবাহিকে নায়িকা হওয়ার সুবাদে অপুর কাছে কোনো কাজই অসম্ভব নয় সব কাজে পারদর্শী।

ধারাবাহিকে শুরু থেকে দেখা গিয়েছে অপুর জামাইবাবু তথা ভাসুর একটু গুরুগম্ভীর মানুষ। তিনি অপুর পরিবার কে খুব একটা পছন্দ করেন না, এমনকি অপুর দিদিকেও তিনি স্ত্রী হিসেবে তেমন স্বীকৃতি দেন না। এবার তার প্রমাণ হাতেনাতে পাওয়া গিয়েছে।

সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে ধারাবাহিকে একটি ভিডিও ক্লিপ সকলের সামনে এসেছে যে ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে অপুর জামাইবাবু যে মেয়েটির জন্য এতদিন পরিবারকে অন্ধকারে রেখে ছিল এবং নিজের স্ত্রীকে যোগ্য সম্মান দিচ্ছিল না সেই মেয়েটি আসলে ঠকবাজ।

বিভিন্ন ছেলেদের থেকে টাকা এবং দামী দামী জিনিসপত্র আদায় করাই তার কাজ। তবে এত সব প্রমাণ পাওয়ার পরেও অপুর জামাই বাবু সেই কথা মুনমুন এর বিরুদ্ধে একটি কথা বিশ্বাস করতে চায় না, এবারে অপু কিভাবে নিজের বুদ্ধি দিয়ে সকলের সামনে তার জামাইবাবুর মুখোশ টেনে তুলবে এবং মুনমুন এর আসল পরিচয় এবং সততার জামাইবাবু সামনে তুলে ধরবে তাই দেখার অপেক্ষায় রয়েছে দর্শক।

Back to top button