বাংলা সিরিয়াল

‘মায়ের দুশ্চিন্তাই সত্যি হলো, সম্পর্ক ভাঙ্গার পর ছয় মাস একা থেকেছি’! ফারহানের মুখোশ খুলে দিলেন অভিনেত্রী প্রত্যুষা পাল

অবশেষে অভিনেত্রী প্রত্যুষা পাল জানালেন তার সাথে ফারহান ইমরোজ সম্পর্ক বিচ্ছেদের কথা। বেশ কিছুদিন ধরেই সম্পর্কে আবদ্ধ ছিলেন তারা। কিন্তু হঠাৎ এই অভিনেতা ফারহান ইমরোজ তাকে ছেড়ে চলে যান। তারপর থেকে কেটে গেছে তিন বছর তবুও অভিনেত্রী এ নিয়ে মুখ খোলেননি। তবে এবারে হঠাৎই মুখ খুলতে বাধ্য হলেন অভিনেত্রী প্রত্যুষা পাল।

কিছুদিন ধরেই ধর্ষণের হুমকি দেয়া হচ্ছিল তাকে, তাই তিনি পুলিশের দ্বারস্থ হয়েছিলেন। যিনি ধর্ষণের হুমকি দিয়েছিলেন তাকে ইতিমধ্যেই গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

তবু মনে রেখো ধারাবাহিকে একসাথে কাজ করতেন অভিনেত্রী প্রত্যুষা পাল এবং অভিনেতা ফারহান ইমরোজ। সেখান থেকেই তাদের প্রেম শুরু। ২০১৭ সালে তাদের আলাপ হয়, তারপরই প্রেম এবং সম্পর্ক। অভিনেত্রী জানান, “একসঙ্গে থাকা শুরু করেছিলাম দক্ষিণ কলকাতায়। ভাড়া নিয়েছিলাম দুজনে মিলে।”

তবে হঠাৎই ভেঙ্গে যায় সেই সম্পর্ক। ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বর মাসে কোনো কারণ ছাড়াই অভিনেতা প্রত্যুষা পাল কে ছেড়ে চলে যান। এক সংবাদমাধ্যম থেকে অভিনেত্রীর কাছে তাদের সম্পর্ক ভাঙার কারণ জিজ্ঞাসা করা হলে, অভিনেত্রী বলেন, “বললে কেউ বিশ্বাস করবেন না, আমরা কেন আলাদা হলাম, তার কারণ আজও আমার কাছে স্পষ্ট নয়।

২০১৮ সালের সেপ্টেম্বর মাস। আগের দিন রাতেও সব ঠিক ছিল। হঠাৎ পর দিন সকালে উঠে ফারহান বলে, ‘আমি বাড়ি যাচ্ছি, কাল দেখা করব।’:তার পর… আর ফেরেনি। ফোন ধরেনি। দেখা করেনি। উধাও! আমি জানতাম যে তার পর দিন থেকে ওর চার-পাঁচ দিনে শ্যুট ছিল। সম্ভবত দার্জিলিং-এ। আমি মেসেজ করেছিলাম, ফেরার পর যাতে এক দিন দেখা করে।

এক বার ফোন ধরে বলেছিল, ‘আমি কাজে যাচ্ছি। এই সময়ে এই বিষয়ে মন দিতে চাই না।’ তবে কথা দিয়েছিল যে দেখা করবে ফিরে এসে। কিন্তু করেনি। আমার কয়েক জন বন্ধু ওকে ফোন করার চেষ্টা করেছিল। তাদেরও কারণ জানায়নি। কেবল বলেছে, ‘আমি চাই না।’ ব্যস। তার পর তিন বছর কেটে গিয়েছে। আজও এক বারের জন্যও রাস্তায় হঠাৎ দেখা হয়নি।”

অভিনেত্রীর বুকে আজও লেখা রয়েছে অভিনেতা ফারহান ইমরোজ এর নাম। সম্পর্কে যাওয়ার পরই অভিনেত্রী বড় বড় করে তার নাম ট্যাটু করিয়েছিলেন। ওই ট্যাটুর সময় উপস্থিত ছিলেন অভিনেতা ফারহান ইমরোজ ও। অভিনেত্রী ট্যাটু করাচ্ছেন দেখে খুব খুশি হয়েছিলেন তিনি। জানা গেছে ট্যাটু টির দৈর্ঘ্য ১২ ইঞ্চি। যে বছর জুনে ট্যাটু করিয়েছিলেন অভিনেত্রী সেই বছরেরই সেপ্টেম্বর মাসে অভিনেত্রী কে ছেড়ে চলে গিয়েছিলেন ফারহান।

তবে সম্পর্ক বিচ্ছেদের এতদিন পর তিনি কেন একথা বলছেন, তা জিজ্ঞাসা করা হলে অভিনেত্রী জানিয়েছেন। অভিনেত্রী নজরে পড়েছে বিভিন্ন সাক্ষাৎকারে তার প্রাক্তন সঙ্গী তার অস্তিত্বটাকেই মিথ্যে প্রমাণ করছেন। এর ফলে ফারহানের অনুরাগীদের থেকে শুনতে হয়েছে নানা রকম কটুক্তি। চুপ করে থাকেন তাহলে এ কটূক্তি আরো বাড়বে। তিনি প্রথমে কারোর কাছে ফারহানের নামে কিছু বলেননি কারণ যাতে ফারহানকে লোকে বাজে না ভাবে।

তবে যদি এভাবে সব সময় চুপ করে থাকেন তাহলে অভিনেত্রীর ওপর আরও প্রভাব পড়বে বলে জানিয়েছেন অভিনেত্রী। সম্পর্ক বিচ্ছেদের পর ছমাস একা থেকেছেন অভিনেত্রী। যে বাড়িতে দুজনে মিলে থাকবে বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন সেই বাড়িতেই একা থাকতেন অভিনেত্রী। পরিবারের কাউকে কিছু জানাননি তিনি। অভিনেত্রী কথায়, “আসলে বড় মুখ করে বাড়িতে বলেছিলাম, একসঙ্গে থাকবো আমরা। তোমরা এত দুশ্চিন্তা করো না। তারপর মায়ের দুশ্চিন্তাই সত্যি হলো।”

Facebook Notice for EU! You need to login to view and post FB Comments!
Back to top button