বাংলা সিরিয়াল

‘গুনগুন হচ্ছে একটা মাইল ফলক চরিত্র যে প্রমাণ করেছিল নায়িকা মানেই সে সর্বক্ষেত্রে জয়ী নয়! ফেল করা মেয়ের গল্প নিয়েও ধারাবাহিক হতে পারে’ উর্মির ইভেন্টে জেতার পর গুনগুন চরিত্রের অসম্ভব প্রশংসা করলেন নেটাগরিকরা

নায়িকা মানেই সে সর্বক্ষেত্রে বিজয়ী। সে কখনো ফেল করতেই পারে না। তাকে সব সময় জয়যুক্ত হতে হবে। এটা যেন ধারাবাহিকের একটা ট্রেন্ড হয়ে গিয়েছে। ফুটবল খেলা হোক অথবা ক্রিকেট, নাচ,গানের পরীক্ষা হোক অথবা গ্ল্যামার ওয়ার্ল্ডের কোন পরীক্ষা সব ক্ষেত্রেই সর্বেসর্বা হবে ধারাবাহিকের নায়িকা। সে জীবনে কোনদিন নাচ না করলেও নাচের প্রতিযোগিতায় প্রথম হবে।

নায়িকা হাত ভাঙা নিয়েও ক্রিকেট, ফুটবল খেলায় ফার্স্ট হবে। ফ্যাশন সম্পর্কে বিন্দুমাত্র ধারণা না থাকলেও সেই হবে ফ্যাশনে প্রথম। এ যেন চিরাচরিত প্রথা। যে জীবনে কোনদিন গ্যাস জ্বালায় নি, সেও প্রথমবার গ্যাস জ্বালিয়ে রান্নার পরীক্ষায় প্রথম হবে এ যেন চিরাচরিত প্রথা। নায়িকা মানেই সে প্রথম আর এই জায়গা থেকেই গুনগুন সম্পূর্ণ ব্যতিক্রম। একজন হেরে যাওয়া ব্যর্থ হয়ে যাওয়া মানুষ‌ও যে নায়িকা হতে পারে ধারাবাহিকের ইতিহাসে তা প্রথম দেখিয়েছিল গুনগুন।

একজন বিজ্ঞানী প্রফেসর স্বামীর সাথে বিয়ে হলেও সে ছিল একজন ফেল করা ছাত্রী। সেখানে উর্মি কখনো রান্না ঠিকমতো না করেও রান্নার শোতে কচুর ডালনা রেঁধে ফাস্ট হয়ে গেলো এটা সবাই মানতে পারছে না। এই প্রসঙ্গে একজন ভক্ত গুনগুন চরিত্রের ব্যতিক্রমের কথা উল্লেখ করে বলেছেন।“গুনগুন হচ্ছে সেই অভিনেত্রী যিনি সিরিয়ালে একটি মাইলফলক রেখে গেছেন।যিনি গল্পের নায়িকা হয়েও গল্পে সে পরীক্ষায় ফেল করেছিলো।গল্পে তার ফেল করাকে শুধু তার ফ্যান ফলোয়াররা না বরং তার হেটার্সরা ও পজিটিভলি নিয়েছিল। নায়ক/নায়িকা বলে পরীক্ষায় ফাস্ট ক্লাস কিংবা যেকোনো ইভেন্টে ফাস্ট/বিজয়ী হতে হবে সেটা কখনোই ঠিক নয়।আর অনেক দর্শক ও সেটা পছন্দ করেনা। বাই দ্য ওয়ে যমুনা থেকে গঙ্গা, খড়ি থেকে উর্মি নায়িকাদের গল্পে যেকোনো ইভেন্টে জেতার ট্রেন্ড দেখে কথাটা মনে পড়লো।”

Back to top button