বাংলা সিরিয়াল

লালনকে বাঁচাতে লালনের সঙ্গে মিথ্যে বিয়ের ফাঁদ পাতলো ফুলঝুরি, ধূলিকণা ধারাবাহিকে এলো নতুন টুইস্ট

সন্ধ্যায় মা ঠাকুমাদের মনোরঞ্জন করার একমাত্র উপায় হলো সিরিয়াল। বিভিন্ন চ্যানেল এর জনপ্রিয় ধারাবাহিক গুলিই তাদের প্রিয়। তার মধ্যে একটি হলো স্টার জলসার ধূলিকণা। মাত্র কয়েক মাসের মধ্যেই এই ধারাবাহিক দর্শকের মন জয় করেছে। ধারাবাহিকে লালন – ফুলঝুরি র জুটি বেশ জনপ্রিয়তা পেয়েছে, ইতিমধ্যেই তারা দর্শকের প্রিয় হয়ে উঠেছে। TRP তালিকাতেও জায়গা করে নিয়েছে। ধারাবাহিকে মনালি, সাবিত্রী চট্টোপাধ্যায়, ইন্দ্রাশিস রায় এর মতন অভিনেতারা অভিনয় করছে। যার জেরে ধারাবাহিকেও জনপ্রিয়তা বেড়েছে।

ধারাবাহিকে লালন হলো একটি বস্তির ছেলে যার দু-চোখে গায়ক হওয়ার স্বপ্ন, তবে পারিবারিক আর্থিক সমস্যার কারণে তার স্বপ্ন আপাতত স্থগিত রেখেছে এবং অর্থ উপার্জনের জন্য দাশগুপ্ত পরিবারের ড্রাইভার এর কাজ হিসেবে যোগদান করেছে। ওই একই বাড়িতে পরিচারিকা হিসেবে কাজ করে ফুলঝুরি। লালনের সঙ্গে ফুলঝুরির প্রথম দিন থেকে আদায় কাঁচকলায় সম্পর্ক। সমস্ত কিছু নিয়ে তাদের খুনসুটি ঝগড়া লেগেই রয়েছে।

তবে ফুলঝুরির বিপদের দিনে লালন সবসময় চেষ্টা করেছে ফুলছড়ির পাশে থেকে ফুলঝুরিতে সাপোর্ট করার। এমনকি ফুলঝুরির বোনের বিয়েতে অভাবের কারণে ফুলঝুরিকে ১০০০০ টাকা দিয়ে সাহায্য করেছে সে। পরস্পরের প্রতি যে টান রয়েছে তার আরও একটি প্রমাণ হলো ফুলঝুরি সঙ্গে সেই এলাকার এক বয়স্ক ভদ্রলোক মানিকদার সঙ্গে বিয়ে ঠিক হয় সেই কথা লালনের কানে যেতেই লালন তীব্র প্রতিবাদ করে ওঠে সে ফুলঝুরিকে স্পষ্ট জানিয়ে দেয় যদি তার বিয়ে করার ইচ্ছে হয় তাহলে সে করুক, কিন্তু মানিকের সঙ্গে সে ফুলঝুরির বিয়ে কিছুতেই হতে দেবে না।

এই সবের মাঝে ধারাবাহিকে দেখানো হয় দাশগুপ্ত পরিবারের মেয়ে চড়ুই লালনকে ভালোবেসে ফেলে। লালনের গান শুনে চড়ুই লালনের প্রেমে পড়ে যায়। কলেজের ফাংশনে লালনের কন্ঠ শুনে মন গলেছে চড়ুইয়ের এবং সেখানেই পার্টিতে মদ্যপ অবস্থায় লালনকে নিজের মনের কথা জানায় সে। চড়ুই নিজের মধ্যে না থাকায় লালন তার কথায় বিশেষ পাত্তা দেয় না, কিন্তু বাড়ি এসে ঘটে আরেক দুর্ঘটনা লালনের সঙ্গে বাড়ি ফিরতে দেখে সকলে অবাক হন এবং পরিবারের সকলের সামনেই জানায় যে সে লালনকে ভালবাসে এবং তার সঙ্গে ঘনিষ্ঠ হয়েছে এই কথায় পরিবারের উপর নেমে আসে ঝড়। তবে এই কথা লালন অস্বীকার করে

পরিবারের আর বাকি সকল এর মতই ফুলঝুরি লালনকে অবিশ্বাস করে। লালনকে থানা পুলিশের ভয় দেখায় চান্দ্রেয়ী। এর মধ্যেই ধারাবাহিকের নতুন প্রমো সামনে এসেছে। প্রমো ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে চড়ুই সঙ্গে ঘটে যাওয়া ঘটনার কারণে লালনকে পুলিশ গ্রেফতার করতে আসে। কিন্তু হঠাৎই লালনকে বাঁচাতে মিথ্যে গল্প ফেঁদে বসে ফুলঝুরি। পুলিশের হাত-পা ধরে মিনতি করিরে লালনের সঙ্গে তার বিয়ে ঠিক হয়েছে কিন্তু বড়লোক বাড়ির মেয়ে তাকে ফাঁসাতে চাইছে লালনের কোন দোষ নেই।

এবারে এটাই দেখার অপেক্ষা যে আগামী দিনে ধারাবাহিকের শেষ পরিণতি কি হয়। লালন কি আদেও জেলে যাবে নাকি ফুলঝুরি এবং লালনের সম্পর্কে আসবে নতুন সমীকরণ।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Star Jalsha (@starjalsha)

Back to top button