বাংলা সিরিয়াল

‘ট্যাক্সি-ড্রাইভার উর্মি হয়ে গেল উকিল’! তীব্র ট্রোলের উত্তরে এবার সংবিধান থেকে সমাধান খুঁজে আনলেন ‘এই পথ যদি না শেষ হয়’ এর অনুগামীরা

এই মুহূর্তে জি বাংলার একটি অন্যতম জনপ্রিয় ধারাবাহিক হলো ‘এই পথ যদি না শেষ হয়’ ধারাবাহিকটি যা অতি অল্প সময়ের মধ্যেই নেটিজেনদের মন জয় করে নিয়েছে। কারণ দর্শকদের একাংশ মনে করছেন একান্নবর্তী পরিবারের ইতিবাচক গল্প দেখিয়েই এই ধারাবাহিকটি অন্য ধারাবাহিকগুলির থেকে অনেকটাই আলাদা হয়ে উঠেছে। তবে এবার একটি বিশেষ দৃশ্যের জন্য সোশ্যাল মিডিয়ায় রীতিমতো সমালোচনার সম্মুখীন হতে হল জি বাংলার ‘এই পথ যদি না শেষ হয়’ সিরিয়ালটিকে।

এই মুহূর্তে ধারাবাহিকের গল্প অনুযায়ী ধারাবাহিকের নায়ক সাত্যকি গ্রেপ্তার হয়েছে পুলিশের হাতে মিথ্যা অভিযোগের ফলে। এরপরই তার হয়ে সওয়াল জবাব করতে কোর্টে হাজির হতে দেখা গিয়েছে তার স্ত্রী ঊর্মিকে। প্রসঙ্গত কিছুদিন আগে উর্মিকে দেখা দিয়েছিল স্বামীর সঙ্গে ট্যাক্সি চালানো শিখতে। সেই ট্যাক্সি ড্রাইভার উর্মি কিভাবে হঠাৎ উকিল হয়ে গেল সেই প্রশ্ন তুলে ধারাবাহিকে নির্মাতা এবং কলাকুশলীদের সোশ্যাল মিডিয়ায় রীতিমতো কটাক্ষ করতে দেখা গিয়েছিল নেটিজেনদের।

তবে এবার সংবিধান থেকে উত্তর খুঁজে আনলেন এই ধারাবাহিকের অনুগামীরা। তারা জানালেন ভারতীয় সংবিধানের অ্যাডভোকেটস অ্যাক্ট অফ ইন্ডিয়া : সেকশন ৩২ অনুযায়ী যে কোনও ব্যক্তি তার প্রিয়জনের হয়ে কেস লড়তে পারে। তাই গল্পের ধারা অনুযায়ী উর্মিরও তার স্বামী সাত্যকির হয়ে কেস লড়তে কোনো বাধা নেই।

Back to top button