বাংলা সিরিয়াল

নোলক অরিন্দমের সাথে হানিমুনে যাবে বলে মুড়ি, পেঁয়াজ, লঙ্কার বস্তা থেকে শুরু করে বালতি মগ ভরে নিয়েছে! গোধূলি আলাপের ভিডিও দেখে হাসছেন নেটাগরিকরা!

স্টার জলসার জনপ্রিয় ধারাবাহিক গোধূলি আলাপ। এই ধারাবাহিকে অসমবয়সী দাম্পত্য সম্পর্কের গল্প দেখানো হয়। মধ্যবয়সী অ্যাডভোকেট অরিন্দম রায় ও বহুরূপী নোলকের ভাগ্যচক্রে বিয়ে হয়ে যায়। একটা সময় অরিন্দম এবং নোলক দুজন দুজনকে স্বামী-স্ত্রী হিসেবে না মানলেও পরবর্তীতে তারা দুজনে একে অপরের প্রতি দুর্বল হয়ে পড়েন আর ভক্তরাও এই দুজনের কেমিস্ট্রি দেখে মুগ্ধ হয়ে যান। দুজনের নাম মিলিয়ে তারা নতুন একটি জুটির নাম তৈরি করেন নাম আরিলোক। এই জুটির ভক্তরা তাদের ফ্যান পেজে এই আরিলোক জুটির প্রত্যেকটা মোমেন্টস নিয়ে আলোচনা করেন।

অন্যদিকে অরিন্দম চরিত্রটি নিয়ে প্রথমদিকে প্রচুর পরিমাণে সমালোচনা হলেও পরবর্তীকালে অরিন্দম চরিত্রের মধ্যে কেয়ারিং অ্যাটিটিউড এবং ভালোবাসা দেখে সকলেই মুগ্ধ হয়ে যান। সকলেই মনে মনে কামনা করতে থাকেন অরিন্দমের মত হাজব্যান্ড পাওয়ার। সম্প্রতি গোধূলি আলাপ ধারাবাহিকে দেখানো হয় যে, ষড়যন্ত্রের নানা জাল পেরিয়ে বর্তমানে একটু একটু করে জমে উঠেছে অরিন্দম নোলকের রসায়ন। অরিন্দম সর্বসমক্ষে স্বীকার করে নিয়েছে তার মনের কথা। এইবার তাদের হানিমুনে যাওয়ার প্ল্যান হচ্ছে।

খুব শীঘ্রই আউটডোর করবে শুটিং হবে। অরিন্দম আর নোলক হানিমুনে গিয়ে কী করবে তা দেখার আশায় কবে থেকে হাপিত্যেশ করে বসে আছেন এই জুটির ভক্তরা। তবে হানিমুনে যাওয়ার আগে বর্তমানে হানিমুনে যাওয়ার প্রস্তুতি পর্ব দেখানো হচ্ছে। যেখানে দেখানো হচ্ছে যে, হানিমুনে যাওয়ার জন্য নোলক ব্যাগ পত্র গোছাচ্ছে। সেই ব্যাগের মধ্যে সে মুড়ি, পেঁয়াজ, লঙ্কা, চাল, ডাল, ফুলকপি সবকিছু ভরে নিয়েছে। মগ, বালিশ, মশারি, বিছানা এমনকি বালতিও ভরে নিয়েছে সে। গোটা সংসার গুছিয়ে এসে যাচ্ছে সে হানিমুন করতে হানিমুন করতে গেলে যে এই সমস্ত কিছু নিয়ে যেতে হয় না তা তাকে কে বোঝাবে? এই দৃশ্য দেখে সবাই হাসছে আর ছেলেমানুষ ব‌উয়ের কাণ্ডকারখানায় লজ্জায় নাক কাটা যাচ্ছে অরিন্দমের।

তবে সোশ্যাল মিডিয়ায় একদল নেটিজেন এই বিষয়টির প্রতিবাদ করে বলেছেন যে, গ্রামের মানুষ এতটাও বোকা হয় না এখন, যে সে হানিমুন করার অর্থ বুঝবে না।

Back to top button