বাংলা সিরিয়াল

ঘুরতে গিয়ে সব্যসাচীকে একেবারে কোলে তুলে নিলেন অভিনেত্রী ঐন্দ্রিলা শর্মা, তাকে দেখে বোঝার উপায় নেই কিছুদিন আগেই ক্যান্সার থেকে সেরে উঠেছেন তিনি

একবার নয় দুই দুইবার মারণ রোগ খাবা বসে ছিল তার শরীরে। দুবার নিজের জীবনের সঙ্গে যুদ্ধ করে অবশেষে জয়ী হয়ে ফিরে এসেছেন তিনি। অসংখ্য কেমোথেরাপির যন্ত্রনা এবং মানসিক ভাবে নিজের সাথে লড়াই সবকিছু কাটিয়ে আজ তিনি দিব্যি সুস্থ। তাকে দেখে বোঝার উপায় নেই যে কিছুদিন আগেও তিনি মারণ রোগের সঙ্গে কঠিন লড়াই চালিয়ে যাচ্ছিলেন। আশা করি বুঝতে পেরেছেন কার কথা বলছি, আমাদের সকলের প্রিয় অভিনেত্রী ঐন্দ্রিলা শর্মা। দীর্ঘ বেশ কয়েক মাসের লড়াইয়ের পর অবশেষে ঐন্দ্রিলা সুস্থ জীবনে ফিরে এসেছেন। আর শুধু ফিরে এসেছেন বললেই ভুল হবে। রীতিমতো চাঙ্গা হয়ে নিজের প্রেমিক সব্যসাচী চৌধুরীকে কোলে তুলে নিচ্ছেন।

গত বছর ফেব্রুয়ারি মাসে দ্বিতীয়বারের জন্য ক্যান্সার আক্রান্ত হন অভিনেত্রী ঐন্দ্রিলা শর্মা। তখন নিজেই সেই কঠিন সময়ে তিনি সব সময় পাশে পেয়েছেন পরিবার এবং প্রেমিক সব্যসাচীকে। সব সময় আগলে রেখেছেন সব্যসাচী ঐন্দ্রিলাকে। ঐন্দ্রিলার সেই সময়ের সেই সমস্ত খবর আমরা সব্যসাচী মারফতি পেয়েছি। কলকাতা থেকে দিল্লি দিল্লি থেকে কলকাতা সব জায়গাতেই ঐন্দ্রিলা কে নিয়ে ছুটে বেরিয়ে ছিলেন সব্যসাচী। প্রেমিকাকে সেটুকু সময় একেবারে আগলে রেখেছিলেন। সেই সময় ঐন্দ্রিলা ভীষণভাবে ভেঙে পড়েছিলেন তাঁর মানসিক এবং শারীরিক সব দিকেই নজর রেখেছিলেন সব্যসাচী। তারপর দীর্ঘ লড়াইয়ের পর অবশেষে ডিসেম্বর মাসে পুরোপুরি সুস্থ হয়ে ফিরলেন ঐন্দ্রিলা।

খুব শীঘ্রই আবার টেলিভিশনের পর্দায় ফিরবেন ঐন্দ্রিলা তা আগেই জানিয়েছেন তিনি। কিছুদিন আগে সব্যসাচীর ধারাবাহিক মহাপীঠ তারাপীঠ শেষ হয়েছে। বর্তমানে ছুটির মধ্যে রয়েছেন দুজনে। আর সেই সুযোগেই ঘুরতে বেরিয়ে পড়েছেন। আর ঘুরতে গিয়ে নিজের ইন্সটাগ্রাম অ্যাকাউন্ট থেকে একটি ছবি পোস্ট করেন। সেখানেই দেখা যাচ্ছে সব্যসাচীকে একেবারে কোলে তুলে নিয়েছেন ঐন্দ্রিলা। ছবিটি শেয়ার করে লিখেছেন ‘see how strong I’m’। ছবিতে ঐন্দ্রিলাকে হলুদ রঙের একটি টপ এবং ডেনিমের হট প্যান্ট পড়ে দেখা গিয়েছে এবং সব্যসাচীর পরনে ছিল সাদা রঙের ফুল t-shirt এবং কালো রংয়ের ট্রাউজার।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by @aindrila.sharma

দুজনকে একসঙ্গে দেখতে বরাবরই ভালোবাসেন দর্শক। তাদের এই সুন্দর প্রেমের কাহিনী প্রত্যেককের মধ্যেই একটা আলাদা অনুভুতি জাগিয়ে তোলে। দর্শকেরা প্রত্যেকে অধীর আগ্রহে বসে আছে ঐন্দ্রিলাকে আবার কবে তারা টেলিভিশনের পর্দায় দেখতে পাবেন সেই জন্য।

Back to top button