একদম সহজ উপায়ে অনেকটাই কমিয়ে ফেলুন বাড়ির বি’দ্যুতের বিল, ১০ নম্বর উপায়টি অত্য’ন্ত গু’রুত্বপূর্ণ!

নিজস্ব প্রতিবেদন :- আমরা যত উন্নত হচ্ছি তত উন্নত হচ্ছে আমাদের চাওয়া পাওয়া গু-লো এবং এই চাওয়া-পাওয়া থেকেই আমরা সমাজ আর উন্নত হচ্ছি এবং উন্নত সভ্যতার হাত ধরে আমরা এগিয়ে চলেছি । সেই মতো আগেকার দিনে মানুষদেরকে দেখা যেত যে অন্ধকারে দিন যাপন করত ।

কিন্তু এখন তার পরিবর্তন ঘটেছে এবং সেই পরিবর্তন হাত ধরে বাজারে এসেছে ইলেকট্রিক ব্যবসা । এখন প্রায় প্রতিটি ঘরে গ্রামগঞ্জে থেকে শুরু করে শহরের সমস্ত জায়গাতেই বৈদ্যুতিক ব্যবস্থা পৌঁছে গেছে এবং বৈদ্যুতিক আলোতে আলোকিত হয়ে উঠছে আমাদের সমাজ

কিন্তু কখনও কখনও দেখা যায় যে বাড়ির বিদ্যুৎ বিল অত্য-ধিক বেশি চলে আসে । এই বাড়ির বৈদ্যুতিক বিল কিভাবে ক-মানো যাবে তার বেশ কয়েকটি উপায় আজকের এই প্রতিবেদনের মাধ্যমে বলতে চলে

প্রথমত আপনি যে বাড়িতে থাকবেন না বা যে রুমে থাকবেন না সেই রুমের লাইট ফ্যান বন্ধ করে দেন এতে অতিরিক্ত যে বিল সেটি আর উঠবে না । ফলে খরচ হবেনা ।

দ্বিতীয়ত এই সময়ে বিশেষজ্ঞরা বলেছেন বাড়ির জানলা খোলা রাখতে । কাজেই এখন বাড়ি জানলা খোলা রাখুন এবং অপ্রয়োজনীয় ফ্যান বা এসি চালাবেন না । তাতে বৈদ্যুতিক বিল অনেকটাই কম আসবে ।

এরপর আসা যাক ইস্ত্রি মেশিন ব্যবহারের ক্ষেত্রে৷ ইস্ত্রি মেশিনে পাওয়ার বেশি লাগে৷ তাই একবার মেশিন গরম হলে সেটা ব’ন্ধ করে ইস্ত্রি করুন জামা কাপড়৷ আবার ঠান্ডা হলে সুইচ অন করুন৷

অনেকেই এই সময় ওয়ার্ক ফ্রোম হোম করছেন৷ সেক্ষেত্রে ল্যাপ-টপ বা ডেক্স-টপ চলছেই কাজে’র জন্য৷ তবে যখন উঠছেন অর্থাৎ ব্রেক নিচ্ছেন, তখন স্লিপ মোডে রাখতে পারেন আপনার কম্পিউটার৷ এতেও কিছুটা সাশ্রয় হবে বিলে৷

উপরিক্ত নিয়মগু-লি এর পাশাপাশি আরও অনেক উপায় রয়েছে । আপনি যদি সেগু-লি মেনে চলেন তাহলে আপনার বাড়ির বৈদ্যুতিক বিল অনেকটা অংশ কম আসবে । এর ফলে বেশি খরচ থেকে আপনি মুক্তি পাবেন। কাজেই যতটা সম্ভব উপযুক্ত নিয়ম গু-লি মেনে চলার চেষ্টা করুন।