বহু বছর পর দেখা মিললো বাড়ির ভিতরে এক দুর্লভ প্রজাতির দুই মাথাওয়ালা সাপ! মুহূর্তের মধ্যে ভাইরাল ভিডিও

পৃথিবীতে বিভিন্ন প্রজাতির বিভিন্ন বিভিন্ন হিংস্র প্রাণী দেখতে পাওয়া যায়। কোনো প্রাণী খুব ভয়ানক হয় তো কোনো প্রাণী হয় বিষধর।

সাপ যার মধ্যে অন্যতম। সাপ ভয় পায় না এমন মানুষ প্থিবীতে খুব কমই রয়েছে। তার উপর আবার সেটি যদি হয় দু মুখ ওয়ালা বিরল প্রজাতির সাপ তাহলে তো কথাই শেষ।

সম্প্রতি একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। যেখানে দেখা যাচ্ছে যে, কালো কুচকুচে দুই মাথাওয়ালা বিশিষ্ট একটি সাপ। আসলে এই ঘটনাটি ঘটেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নর্থ কারোলিনা প্রদেশে।

জিয়েনিন উইলসন নামের এক বৃদ্ধা মহিলা হটাৎই তাঁর ঘরের মেঝেতে দেখতে পান কিছু একটা চলে বেড়াচ্ছে। আর তারপরই তিনি একটু এগিয়ে গিয়ে দেখেন যে সেটি আসলে দুই মাথাওয়ালা বিশিষ্ট সাপ।

সেটি দেখে তিনি উত্তেজিত না হয়ে খুব ঠান্ডা মাথায় সাপটির গতিবিধি লক্ষ করতে থাকেন। এমনকি নিজের ফোনে সাপটির ভিডিও করে তার উপর নজর রাখতে থাকেন।

সে সাথে সাথে তিনি তার নাতিকে ফোন করে জানান। তার নাতিকে ফোন করবার সঙ্গে সঙ্গেই তার নাতি দেরি না করে সঙ্গে সঙ্গে সায়েন্স সেন্টারে খবর দেন। সায়েন্স সেন্টারের লোকেরা এসে সাপটিকে উদ্ধার করেন।

তারা জানায় এই সাপটি অত্যন্ত ভয়ানক ও বিরল প্রজাতির স্যাপ ছিল। জিয়েনিন ঠান্ডা মাথায় পরিস্থিতি না সামলালে একটা বোরো দুর্ঘটনা ঘটে যেতে পারত।

তারা আরো জানায় যে এই ধরনের সাপ সাধারণত লোকালয়ে আশ্রয় নেবার জন্যই আসে। তাদের বিরলতাই তাদের বিলুপ্তির প্রধান কারণ। এই ধরনের সাপ ২০০০ এর মধ্যে একটি হয়ে থাকে।