অবাক কান্ড! শশ্মানে নিয়ে যাওয়ার সময় উঠে বসলো মৃত মানুষ, তুমুল ভাইরাল ভিডিও

ভাইরাল ভিডিও এখন ট্রেন্ডিং, তা সে সালের বদল হোক বা দশকের বদল হোক৷ এই ট্রেন্ড এখন জারি৷ ২০২১ তেও যা বোঝা যাচ্ছে বাজার কাঁপাবে এইসব ভিডিওই৷ সোশ্যাল মিডিয়া হ্যান্ডেলে বিভিন্ন আলাদা সোশ্যাল হ্যান্ডেল থেকে এইসব ভিডিও নিয়মিত আপলোড হয়৷

এটাকেই জনপ্রিয় হওয়ার প্ল্যাটফর্ম হিসেবে ধরে নেওয়া হয়েছে৷ বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়া হ্যান্ডেলে এই ভিডিওগুলি দিয়ে যেরকম ভিউজ হয় তার একটা নির্দিষ্ট দর্শক সংখ্যা পেরোনোর পরেই তারা টাকাও উপার্জন করতে পারেন এই সব ভিডিও থেকে৷

কখনো কখনো এইসব ভিডিও নির্মল আনন্দের জন্য তৈরি হয়৷ আবার অনেক সময়েই এখানে সত্যি প্রতিভারও এখানে নিজেদের মেলে ধরেন। সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে কি না সম্ভব! আমাদের ওইটুকু ছোট্ট ফোনটি আমাদের দুটি চোখকে ঘুরিয়ে দেয় গোটা পৃথিবীটাকে। আর এর দৌলতেই আমারা সাক্ষী হয়ে যাই আজব আজব সব ঘটনার।

যার জেরে মাঝে মাঝে তাজ্জবও বনে যাই আমরা। তবে এখানে নানানরকম সব ঘটনা আমরা দেখতে পাই তার মধ্যে কিছু এমন ঘটনা থাকে যা দেখলে রীতিমতো গায়ে কাঁটা দেয়, আবার চোখে জলও আসে।

সম্প্রতি একটি ভিডিও ঝড়ের গতিতে ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায, যেখানে দেখা যাচ্ছে একটি মৃত বৃদ্ধকে খাটিয়া করে শ্মশানে নিয়ে যাচ্ছে তাঁর পরিজনেরা।

বৃদ্ধের আপাদমস্তক সাদা কাপড়ে মোড়া, চোখে তুলসী পাতা, গলায় মালা। শ্মশানে যাওয়ার আগেই বৃদ্ধের মরদেহ রোদে রেখে খানিকটা বিশ্রাম নিতে একজায়গায় দাঁড়িয়েছিলেন শ্মশান যাত্রীরা, আর সেই সময়ই এক অদ্ভুত ঘটনা।

হঠাৎ করেই মৃতদেহ নড়ে ওঠে এবং সটান হয়ে বসে পড়ে খাটিয়ার ওপর। নিজের হাতে খুলে দিল তাঁর গলার মালা এবং উঠিয়ে দিল চোখে তুলসী পাতা। স্বাভাবিকভাবেই এই ঘটনায় সবাই অবাক হলেও পরে পরিস্থিতি খানিকটা সামলে ওঠার পর এক ব্যক্তি দৌড়ে এসে খাটিয়ার সমস্ত দড়ি কেটে দেয়।

ততক্ষণে অবশ্য সবাই মোবাইলে বন্দি করে নেয় এই আজব ঘটনার ভিডিও। বৃদ্ধ অবশ্য খাটিয়ার উপর বসে রয়েছেন। তবে ঘটনাটি সঠিক কোথায় ঘটেছে তা সঠিক জানা যায়নি। তবে ভিডিও টিতে অনেকেই বাংলা ভাষায় কথা বলছেন সুতরাং এই ঘটনা পশ্চিমবাংলারই বলে অনুমান করা হচ্ছে। সঙ্গে দ্রুতবেগে ভাইরাল হয়েছে এই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায়।