অভাবের সংসারে বন্ধ পড়াশোনা, ট্র্যাফিক সিগন্যালে মোজা বিক্রি করছে ১০ বছরের ছেলে

সম্প্রতি একটি ভিডিয়ো ভাইরাল হয়েছিল সোশ্যাল মিডিয়ায়। ওই ভিডিয়োয় লুধিয়ানার একটি ট্র্যাফিক সিগন্যালে দাঁড়িয়ে মোজা বিক্রি করতে দেখা গিয়েছিল বছর ১০- এর একটি ছেলেকে।

জানা গিয়েছিল, ক্লাস ২ পর্যন্ত পড়াশোনা করেছে ওই ছেলেটি। তার নাম বংশ সিং। কিন্তু পরিবারের আর্থিক টানাটানিতে স্কুল ছাড়তে হয় তাকে। এরপর মোজা বিক্রির পথই বেছে নিয়েছিল ছোট্ট বংশ।

তবে স্কুল ছাড়তে বাধ্য হলেও, পড়াশোনার প্রবল ইচ্ছে রয়েছে তার। পরিবারের পাশে আর্থিক ভাবে দাঁড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে নিজের স্বপ্নপূরণ করতেও চায় এই ছোট্ট ছেলে।

কিন্তু সময় যত এগিয়েছে, দারিদ্র্য যে কী চরম সমস্যা সেটা বুঝতে পেরেছে বংশ। যদিও অভাব তার সততাকে খর্ব করতে পারেনি।

ভাইরাল হওয়া ভিডিয়োতে দেখা গিয়েছিল, এক ক্রেতা তাকে অতিরিক্ত ৫০ টাকা দিয়েছেন। কিন্তু সেই টাকা নেয়নি বংশ। উল্টে বলেছে যা ন্যায্য দাম সেটাই নেবে সে।

লুধিয়ানার এই ভিডিয়ো ভাইরাল হয় নিমেষেই। ছোট্ট বংশের পড়াশোনার প্রতি আগ্রহের কথা জানতে পারে পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী অমরিন্দর সিং।

ছোট্ট ছেলের পারিবারিক দুর্দশার কথা শুনে মুখ্যমন্ত্রী সাহায্যের হাত বাড়িয়েছেন। অমরিন্দর সিং জানিয়েছেন, বংশকে আবার স্কুলে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হবে। পাশাপাশি তার পরিবারকেও ২ লক্ষ টাকা আর্থিক সাহায্য করা হবে।

ইতিমধ্যেই মুখ্যমন্ত্রী অমরিন্দর সিংয়ের সঙ্গে ভিডিয়ো কলে কথাও হয়েছে ছোট্ট বংশের। তাকে ভাল করে পড়াশোনা করে, প্রতিষ্ঠিত হওয়ার কথা বলেছেন মুখ্যমন্ত্রী।

খুব তাড়াতাড়ি বংশকে স্কুলে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হবে বলে জানা গিয়েছে। এই প্রসঙ্গে লুধিয়ানার ডেপুটি কমিশনারের সঙ্গেও কথা বলেছেন পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী।