বহু বছর পর দেখা মিললো দুধ সাদা রঙের বিরল প্রজাতির কেউটে সাপের, তুমুল ভাইরাল ভিডিও

সাপকে কেই না ভয় পায় বলুন তো দেখি। বাচ্চা থেকে বুড়ো সকলেই সাপের নাম শুনলে ভয়ে সিটিয়ে যায়। এমনকি একটু খোঁজ রাখলেই জানা যায় যে, গ্রামে গঞ্জে এই সাপের ছোবলে কত মানুষ মারা যায়।

কিন্তু তারাও অসহায় হয়ে পড়ছে দিন দিন। যেভাবে বসতি, কলকারখানা গড়ে উঠেছে তাতে সাপেদের বাসস্থান বলেই কিছুই থাকছে না।

আর তাই সাপেরাও লোকালয়ে চলে আসছে। দিন দিন যেভাবে পশু-পাখি কমে যাচ্ছে দেশ থেকে সেটাও খুব একটা সুখকর নয় আমাদের জন্য।

আজকাল কার দিনে দাঁড়িয়ে প্রতিনিয়তই আমরা হাজারও অবাক করা ঘটনার সম্মুখীন হয়ে চলেছি। আর সেইসব অবাক করা ঘটনাগুলিই সোশ্যাল মিডিয়ায় মাধ্যমে ধরা পড়ে আমাদের চোখে।

সম্প্রতি দক্ষিণ ভারতের একটি গ্রামে এক মন্দিরের সামনে দেখা মিলছে একটি সাদা কেউটে সাপের। আর মন্দির চত্বরে এই দৃশ্য দেখে রীতিমতো ভয় পেয়েছেন মানুষজন। আর সাপটিকে দেখে বেশ বিষাক্ত বলেই মনে হচ্ছে।

কেননা সাপটি বেশ ফনা তুলে রয়েছে। তবে, গ্রামাঞ্চলের মানুষজন সাপকে মা মনসা রূপে আজও পুজো করে চলেছে।

আর তাই সাপ তাঁদের কাছে আজও পুঁজিত। আর তাই সাপ দেখে ভয় পাওয়ার পাশপাশি মানুষজন মা মনসার তুলনা করে তাঁকে প্রণামও জানাচ্ছেন। তবে, এই সাপটির শারীরিক গঠন অন্য সাপেদের তুলনায় আলাদা।

আর তাই এই সাপকে বিরল প্রকৃতির সাপের মধ্যে ধরা হচ্ছে। মূলত জিনগত সমস্যার কারণেই এমন আলাদা হয়। কিন্তু তাঁদের এই আলাদাই বৈশিষ্ট তাঁকে সকলের থেকে আলাদা করে রেখেছে। সম্প্রতি সাপের এই ভিডিওই ঝড়ের বেগে ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।