বিশাল শক্তিশালী চিতা বাঘের সঙ্গে লড়াই করে নিজের সন্তানকে বাঁচালো মা বানর, তুমুল ভাইরাল ভিডিও

মায়ের সঙ্গে সন্তানের সম্পর্ক অন্য সমস্ত সম্পর্কের থেকে আলাদা। একজন মা তার সন্তানকে ঠিক রাখার জন্য ভালো রাখার জন্য সবকিছু করতে পারেন। কেউ যদি তার সন্তানের ক্ষতি করতে চায় তাহলে তো আর কথাই নেই, নিজের সন্তানকে বাচাঁনোর জন্য মা যে কোন সীমা পর্যন্ত যেতে পারেন। এমনই এক ঘটনার ভিডিও ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

সোশ্যাল মিডিয়া একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে এখানে দেখা যাচ্ছে একটি চিতাবাঘ খুব সন্তর্পনে নিঃশব্দে একটি গাছের উপর থেকে একটি বাঁদরের বাচ্চাকে মুখে করে নিয়ে পালিয়ে যাবার চেষ্টা করছিল।

এই পুরো বিষয়টা একদল বাঁদর গাছে বসে দেখছিল। চিতাবাঘটি বাঁদর বাচ্চাটিকে নিয়ে চলে যাবার সময়ই গাছের ওপর থেকে বাঁদরের দল নেমে এসে চিতাবাঘটিকে ঘিরে ফেলে এবং পরে তাড়া করতে শুরু করে। এরপরে চিতাবাঘটি বাঁদরের বাচ্চাটিকে মুখ থেকে ফেলে দিয়ে নিজেই ভয় পেয়ে পালাতে থাকে।

বাঁদরের দল অনেক দূর পর্যন্ত তাড়া করেছিল চিতাবাঘটিকে। একটা বাঁদর বাচ্চাকে বাঁচানোর জন্য গোটা বাঁদরের দল তারা করেছিল সেটা বাঘটিকে। চিতাবাঘটি যখন বাঁদরের বাচ্চাটাকে ফেলে দিয়ে চলে যায় তখনই মা বাঁদরটি তাড়াতাড়ি তার সন্তানকে তুলে নিয়ে দূরে একটা ফাঁকা জায়গায় গিয়ে বসে তার সন্তানের শুশ্রূষা করতে থাকে। তবে বাঁদর বাচ্চাটি শেষ পর্যন্ত বেঁচে ছিল কিনা সেটা ভিডিওটি দেখে বোঝা যায়নি।

সোশ্যাল মিডিয়ায় ভিডিওটি ভাইরাল হওয়ার পর দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে অনেক নেটিজেনদের। ভিডিওটি দেখেই বোঝা যাচ্ছে এটি কোন সাধারণ মানুষের তোলা ভিডিও নয়।

তবে সোশ্যাল মিডিয়ার দৌলতে আমরা এমন ভিডিও ঘরে বসেই দেখতে পাচ্ছি। তবে ভিডিওটি দেখে একটা শিক্ষা আমরা পাই। এই শিক্ষাই পাই যে কোন একটা কাজ একা করার থেকে যদি সবাই মিলে করা যায় তাহলে কাজটি অনেকটা সহজ হয়। এই নিয়ে বাংলা প্রবাদেই আছে “দশে মিলি করি কাজ, হারি জিতি নাহি লাজ”