সাহসী পুরোহিত, ১৯ ফুট জ্যান্ত কোবরার পুজো করছেন! তুমুল ভাইরাল হলো ভিডিও

এশিয়ার অনেক দেশে আজও বিভিন্ন প্রাণীদের দেবতা হিসেবে পুজো করা হয়। কখনো গরুকে মাতা হিসেবে কিংবা কখনো সাপকে মা মনসা হিসেবে।

সাপকে দেবতা মেনে পুজো করবার রীতি বহুদিন থেকে সমাজে চলে আসছে। কিন্তু কখনো কোনো জ্যান্ত কোবরার পুজো হতে দেখেছেন?

আজ্ঞে হ্যাঁ যেমন তেমন নয় জ্যান্ত কোবরা স্যাপ তও আবার ১৯ ফুট লম্বা। এই রকমই একটি ঘটনা দেখতে পাওয়া গেছে ম্যালেশিয়ার একটি হিন্দু মন্দিরে। সেই হিন্দু মন্দিরেরই একটি ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে সোশ্যালমিডিয়াতে।

ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে এক পুরোহিত এর সামনে ১৯ ফুট লম্বা একটি কোবরা বসে আছে এবং পুরোহিতটি তাকে পুজো করছেন। শুধু তাই নয় তার মাথায় ছুঁইয়ে দিচ্ছেন পঞ্চপ্রদীপের আরতি এবং সাপটি কাউকে কোনো রকম ক্ষতি না করে পুজো গ্রহণ করছে।

ভিডিওটিতে আরো দেখা যাচ্ছে মন্দিরের সামনে প্রচুর দর্শক এই দৃশ্যের সাক্ষী হয়ে রয়েছেন। বৈজ্ঞানিকদের মতে এই সাপটি প্রায় ১৯ জনকে একসাথে মেরে ফেলতে পারে।

শুধু তাই নয় এই সাপের বিষে যে কোনো মানুষের তৎক্ষণাৎ মৃত্যু ঘটে যেতে পারে। কিন্তু ওখানে উপস্থিত কোনো ব্যাক্তির মনে এই ভয় কাজ করছে না।

আসলে ম্যালেশিয়ায় এইরকম নিয়ম রয়েছে যে কোনো হিংস্র পশুর পুজো করা হলে সেই পশুটি আর কাউকে কখনো আক্রমণ করবেনা।

এই নিয়ম অনুসারে ম্যালাশিয়ায় সমস্ত হিংস্র পশুদের পুজো করা হয়ে থাকে। এই বিষয় নিয়ে সন্দেহ থাকলেও ভিডিওটিতে কিন্তু সেই কোবরা সাপটি কারুর কোনো ক্ষতি করেনি বরং তার হাবভাব থেকে এটাই স্পষ্ট হচ্ছিলো যে সে নিজেও বেশ স্বাচ্ছন্দ বোধ করছে।