দারুন সুযোগ! এই ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট থাকলে আপনিও পেয়ে যেতে পারেন ১.৩ লক্ষ টাকা

প্রধানমন্ত্রী জন ধন যোজনা কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে একটি আর্থিক পরিষেবা দেশের সাধারণ মানুষের জন্য। যেসব মানুষ দরিদ্র সীমার নীচে তারাও এ্যাকাউন্ট খুলতে পারেন।

শূন্য ব্যালেন্সে খোলা যায় এই অ্যাকাউন্ট। দেশের যে সব নাগরিকের বয়স ১০ বছরের ঊর্ধ্বে তারা প্রত্যেকে এই প্রধানমন্ত্রী জন ধন যোজনা গ্রাহক হতে পারেন।

প্রধানমন্ত্রী জন ধন একাউন্ট খুলতে গেলে গ্রাহকদের ভোটার আইডি কার্ড, আধার কার্ড, প্যান কার্ড, ড্রাইভিং লাইসেন্স, পাসপোর্ট ইত্যাদি একাধিক গুরুত্বপূর্ণ ডকুমেন্ট জমা দিতে হয় ব্যাঙ্কে।

প্রধানমন্ত্রী জন ধন একাউন্ট মূলত পাবলিক সেক্টর ব্যাঙ্কে খোলা হয় তবে গ্রাহক তার সুবিধা অনুযায়ী বেসরকারি ব্যাঙ্ক গুলোতে এই অ্যাকাউন্ট খুলতে পারেন এবং তার সুবিধা ভোগ করতে পারেন।

যদি কোন গ্রাহক মনে করেন তিনি সেভিংস অ্যাকাউন্টটিকে প্রধানমন্ত্রী জন ধন অ্যাকাউন্টে কনভার্ট করবেন তাহলে তিনি তা করতে পারেন।

প্রধানমন্ত্রী জন ধন অ্যাকাউন্টের মূল সুবিধা হল এই অ্যাকাউন্টে টাকা রাখার প্রয়োজন হয়না। রাখলেও চলে আর না রাখলেও কোন সমস্যা হয় না।

গ্রাহকরা তাদের সেভিংস অ্যাকাউন্টে যে পরিমাণ সুদ পেতেন এই অ্যাকাউন্টের ক্ষেত্রে তারা তেমনটাই পাবেন। এই অ্যাকাউন্টের গ্রাহকরা মোবাইল ব্যাঙ্কিং পরিষেবা পাবেন বিনামূল্যে।

টাকা তোলার জন্য কিংবা শপিং করার জন্য এই অ্যাকাউন্ট হোল্ডাররা পাবেন রুপে কার্ড। ২ লক্ষ টাকা পর্যন্ত দুর্ঘটনা বীমা কভার এবং ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত ওভারড্রাফটের সুবিধা পেতে পারেন এই প্রধানমন্ত্রী জন ধন অ্যাকাউন্টের গ্রাহকরা।

প্রধানমন্ত্রীর জন ধন যোজনার যারা গ্রাহক হবেন তারা তাদের অ্যাকাউন্টে ১.৩ লক্ষ্য টাকার লাভ পাবেন। এই অ্যাকাউন্টের গ্রাহকদের ১,০০,০০০ টাকা দুর্ঘটনা বিমার জন্য এবং ৩০,০০০ টাকা জেনারেল ইনস্যুরেন্স দেওয়া হয়ে থাকে। এই যোজনার যেকোনো ধরনের গ্রাহকরা এই সুবিধা পাবেন।