পুজোয় ব্যবহৃত এই উপাদান বদলে দিতে পারে আপনার জীবন, কাজে লাগান জ্যোতিষশাস্ত্রের এই টোটকা

বাঙালির রীতি অনুযায়ী যে কোনও শুভ কাজে পান পাতা ব্যবহার করা হয়। পুজো থেকে শুরু করে যে কোনও শুভ কাজে পানের ব্যবহার হয়ে থাকে।

প্রধানত দক্ষিণ এশিয়া, উপসাগরীয় অঞ্চলের দেশসমূহ, দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের মানুষ পান খায়। ঐতিহ্যগতভাবে সামাজিক রীতি, ভদ্রতা এবং আচার-আচরণের অংশ হিসেবেই বাংলায় পানের ব্যবহার চলে আসছে।

এক সময় উৎসব, পূজা ও পুণ্যাহে পান ছিল অবিচ্ছেদ্য অংশ।

জ্য়োতিষশাস্ত্র মতে, এই পান আপনার দুর্ভাগ্যকে সৌভাগ্যে পরিণত করতে পারে। এর পাশাপাশি সম্পদ বৃদ্ধি ও মানসিক শান্তি পূরণেও সাহায্য করে পুজোয় ব্যবহার করা পান।

তবে চলুন জেনে নেওয়া যাক কীভাবে পুজোয় ব্যবহৃত পান ব্যবহার করবেন নিজের সৌভাগ্য পরিবর্তনের জন্য। একটি সাদা কাপড়ে সিঁদুর দিয়ে স্বস্তিক চিহ্ন এঁকে এতে পুজোর পান, সামান্য আতপ চাল, কাঁচি হলুদ একসঙ্গে বেঁধে নিন।

এটি বাড়ির মূল প্রবেশদ্বারে একটু উঁচুতেই ঝুলিয়ে রাখুন। তবে এমনভাবেই টাঙাতে হবে যাতে সেখানে সহজে কারও হাত না লাগে।

গণেশের ছবি রয়েছে এমন একটি রুপোর কয়েন ও পুজোয় ব্যবহৃত পান একসঙ্গে রেখে সিদ্ধিদাতার পুজো করুন। এতে শুভ ফল পাবেন হাতেনাতে।

একটি সবুজ কাপড়ে সুপারি, সামান্য আতপ চাল ও কাঁচি হলুদ ও পুজোর পান একসঙ্গে বেঁধে নিন। ব্যবসার স্থানে বা কর্মক্ষেত্রে এটি অন্যের চোখের আড়ালে রেখে দিন।

এতে আগত প্রায় সমস্ত বাধা বিপত্তি কেটে যায়। বৃহস্পতিবার লক্ষী দেবীর পুজোয় ব্যবহৃত পানে সিঁদুরের ফোঁটা দিয়ে, সেটি যেখানে টাকা পয়সা রাখেন সেই স্থানে রেখে দিন। এতে মা লক্ষ্মীর কৃপায় সর্বদা আর্থিক উন্নতি বৃদ্ধি পায়। পাশাপাশি আর্থিক সমস্যা থাকলে তা কেটেও যায়।